Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০২:১৫
জিয়াউর রহমান মুক্তিযোদ্ধার সাইনবোর্ড লাগিয়ে ছিলেন : আমু
ঝালকাঠি প্রতিনিধি

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, জিয়াউর রহমান মুক্তিযোদ্ধার সাইনবোর্ড লাগিয়েছিলেন। তিনি কোনো যুদ্ধ ক্ষেত্রে না গিয়ে পাকিস্তানিদের দালাল হিসেবে মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে অনুপ্রবেশ করেছিলেন।

পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধুর হত্যার সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে এই দেশকে পাকিস্তানি কাঠামোতে নিয়ে যেতে চেয়েছিলেন। গতকাল দুপুরে ঝালকাঠি সদর উপজেলার শেকেরহাট ইউনিয়নে তিন কোটি ৮৩ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ১০ শয্যা বিশিষ্ট আবদুল খালেক খান মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের উদ্বোধন শেষে আলোচনা সভায় শিল্পমন্ত্রী এ কথা বলেন। শিল্পমন্ত্রী আরও বলেন, ‘এই দেশের রাজনীতিতে সাম্প্রদায়িকতার কোনো সুযোগ ছিল না। জিয়াউর রহমান সাম্প্রদায়িকতার রাজনীতি শুরু করেন। গোলাম আযমের নাগরিকত্ব না থাকা সত্ত্বেও তাকে দেশে এনে রাজনীতি করার সুযোগ দেন। শিল্পমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নতি হয়েছে। গ্রামের মানুষ আজ ভালো মানের স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছেন। মাতৃ মৃত্যু ও শিশু মৃত্যুর হার কমে মানুষের গড় আয়ু বৃদ্ধি পেয়েছে। ’ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসানুল কবির আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী শাহ মোহাম্মদ হান্নান, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও শেখেরহাট ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন খান সুরুজ। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক মিজানুল হক চৌধুরী, পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহা, জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, ঝালকাঠি সদর উপজেলার চেয়ারম্যান মো. সুলতান হোসেন খান, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সালাহউদ্দিন আহম্মেদ সালেক ও সাংগঠনিক সম্পাদক তরুণ কর্মকার।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow