Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৩ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৩৬
ভুয়া সনদে ছাত্রদল নেতা হচ্ছেন জনি!
নিজস্ব প্রতিবেদক

ভুয়া সনদপত্র দিয়ে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা শাখা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক পদ বাগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন মনিরুল আলম জনি। এ নিয়ে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে নিয়মিত ধরনা দিচ্ছেন তিনি।

কেন্দ্রে পাঠানো নিজের শিক্ষাজীবনের সনদপত্রে এমবিএ পড়ুয়া বলে দাবি করলেও মূলত জনি এসএসসি পাস। তার বাকি সব সনদপত্রই ভুয়া ও জাল। এ নিয়ে স্থানীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। তার ভুয়া সদনপত্রের কপিও বাংলাদেশ প্রতিদিনের কাছে রয়েছে। এ ছাড়া জনির রাজনৈতিক পরিচয়পত্রগুলোও ভুয়া বলে স্থানীয় ছাত্রদল নেতা-কর্মীদের অভিযোগ। জানা যায়, মুরাদুল ইসলাম নামের একজন ডিগ্রি পাস শিক্ষার্থীর সনদপত্রের ফটোকপিতে নিজের নাম জুড়ে দিয়েছেন মনিরুল আলম জনি। হাটহাজারী কলেজের অধ্যক্ষের স্বাক্ষর জালও করা হয়েছে। এ নিয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে বলে সূত্র জানায়।

উত্তর জেলা শাখা ছাত্রদল নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, মনিরুল আলম জনি এসএসসি পাস। তার গ্রামের বাড়ি হাটহাজারীর মেখল ইউনিয়নে। তিনি এসএসসি পাস করে কাপড়ের ব্যবসা করছেন। গুটিকয় নেতাকে আর্থিক সুবিধা দিয়ে জেলার সাধারণ সম্পাদক হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কোনো কোনো নেতাও এ অনৈতিক প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত বলে জানান তারা। উত্তর জেলার ক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতা-কর্মীদের বক্তব্য— এসএসসি পাস কেউ ছাত্রদলের জেলা নেতৃত্বে আসতে পারেন না। এ বিষয়টি কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব গুরুত্ব না দিলে জনিকে জেলার নেতা-কর্মীরা কেউ মেনে নেবেন না। এদিকে জনির ভুয়া সনদপত্র ও রাজনৈতিক পরিচয়ের বিষয়টি অবগত হয়েছেন চট্টগ্রাম বিএনপির প্রভাবশালী নেতারাও। এ নিয়ে তারা উষ্মা প্রকাশ করেছেন। বিষয়টি তারা কেন্দ্রীয় ছাত্রদলকে অবহিত করবেন বলে একাধিক নেতা বাংলাদেশ প্রতিদিনকে জানান।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow