Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৫২
‘বন্দুকযুদ্ধে’ জামায়াত কর্মী নিহত
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আবুল বশর নামে জামায়াতে ইসলামীর একজন কর্মী নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার মধ্যম কাঞ্চনা এলাকার মৃত দুদু মিয়ার ছেলে। পুলিশ বলছে— ‘গতকাল ভোরে সাতকানিয়া উপজেলার এওচিয়া ইউনিয়নের ছনখোলা এলাকায় সহযোগীদের গুলিতে আবুল বশর নিহত হয়েছেন। এ সময় সাতকানিয়া থানার ওসিসহ পুলিশের আট সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে দুটি একনলা বন্দুক, একটি এলজি ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। নিহত বশর ২১ মামলার আসামি ও জামায়াতের সাবেক সংসদ সদস্য শাহজাহান চৌধুরীর দেহরক্ষী হিসেবে পরিচিত ছিলেন।’ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা জামায়াতে ইসলামীর প্রচার সম্পাদক কামাল হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি আবুল বশরকে নিজেদের কর্মী বলে জানান। সাতকানিয়া থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন খোন্দকার বলেন, শনিবার বিকালে বাঁশখালী উপজেলার পুকুরিয়া এলাকা থেকে বশরকে গ্রেফতার করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান এওচিয়া এলাকায় কিছু অস্ত্র মজুদ রয়েছে। এসব অস্ত্র উদ্ধারের জন্য অভিযান চালানো হলে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে তার সহযোগীরা। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এ সময় বশর পালানোর চেষ্টাকালে সহযোগীদের ছোড়া গুলিতে আহত হন। পরে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওসি জানান, বশরের সহযোগীদের হামলায় তিনিসহ আট পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। আহতরা সবাই সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। সাতকানিয়া থানা পুলিশ জানায়, পুলিশ কনস্টেবল ইকবাল, মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ কাদেরী, আওয়ামী লীগ নেতা নূরুল কবির, যুবলীগ নেতা জামাল ও হাসানসহ সাতটি হত্যা মামলার আসামি ছিলেন জামায়াত কর্মী বশর। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি-দস্যুতা এবং হরতাল-অবরোধের অভিযোগে আরও ১৪টি মামলা আছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow