Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৩২
হবিগঞ্জে চার শিশু হত্যা মামলায় আরও দুজনের সাক্ষ্য গ্রহণ
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রামে চার শিশু হত্যা মামলার সাক্ষ্য গ্রহণের দ্বিতীয় দিনে আরও দুজনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে। এ ছাড়াও প্রথম দিনে একজনের অসম্পূর্ণ জেরাও গতকাল সম্পন্ন হয়েছে। ২৪ ও ২৫ অক্টোবর সাক্ষ্য গ্রহণের পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

জেলা ও দায়রা জজ এবং শিশু আদালতের বিচারক আতাব উল্লাহর আদালতে দুপুর ১২টায় সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হয়। প্রথমেই সোমবারের সাক্ষী আবদুল আহাদের জেরা শুরু হয়। এরপর আরও দুজন সাক্ষ্য প্রদান করেন। এরা হলেন আফজল মিয়া ও নিহত শিশু ইসমাইলের বড় ভাই এমরান তালুকদার।

সরকারপক্ষে সাক্ষ্য গ্রহণ করেন পিপি অ্যাডভোকেট ত্রিলোককান্তি চৌধুরী বিজন। আসামিপক্ষে সাক্ষীদের জেরা করেন অ্যাডভোকেট চৌধুরী আশরাফুল বারী নোমান। অ্যাডভোকেট ত্রিলোককান্তি চৌধুরী বিজন জানান, গতকাল সাক্ষী আফজল মিয়া শিশুদের সিএনজি-অটোরিকশায় করে নিয়ে যেতে দেখেছেন বলে আদালতকে জানিয়েছেন। অ্যাডভোকেট চৌধুরী আশরাফুল বারী নোমান জানান, দুই পঞ্চায়েতের মাঝে বিরোধ ছিল। সর্দার আবদুল খালেকের শেখানো কথা তার ভাতিজা এমরান তালুকদার আদালতে বলেছেন। উল্লেখ্য, গত ১২ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় চার শিশুকে অপহরণের পাঁচ দিন পর গ্রাম থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরের ইছারবিল খালের পাশে চার শিশুর মৃতদেহ পাওয়া যায়। নিহত শিশুরা হলো সুন্দ্রাটিকি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র জাকারিয়া শুভ (৮), প্রথম শ্রেণির ছাত্র মনির মিয়া (৭), চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র তাজেল মিয়া (১০) ও সুন্দ্রাটিকি মাদ্রাসার ছাত্র ইসমাইল মিয়া (১০)। ৫ এপ্রিল হবিগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশের তৎকালীন ওসি মুক্তাদির হোসেন আটজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলার অন্যতম আসামি বাচ্চু মিয়া র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow