Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ অক্টোবর, ২০১৬ ০৩:১৪
চিকিৎসকের গাফিলতিতে মা ও নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ
নিজস্ব প্রতিবেদক

চিকিৎসকের গাফিলতিতে মিরপুরের ডা. আমানত খান হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে মা ও নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। সেখানে সিজারিয়ান অপারেশনে সন্তান জন্মদানের পর মা খাদিজা বেগমের (২৬) মৃত্যু হয়েছে।

এর দুদিন পর মারা যায় নবজাতকটিও। গত ১১ অক্টোবর ঘটনাটি ঘটে। গতকাল পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ থেকে ঢাকায় আমানত খান হাসপাতালে আনা হয় খাদিজাকে। সেখানে চিকিৎসক ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের যথেষ্ট গাফিলতি ছিল। খাদিজার স্বামী মাসুদ বলেন, হাসপাতালে আনার পরই চিকিৎসক বলেন, অপারেশন না করালে নবজাতক ও প্রসূতি দুজনেরই ক্ষতি হতে পারে। অপারেশনের পর তারা জানায়, আমার স্ত্রী সুস্থ আছেন। কিন্তু রোগীর সঙ্গে কাউকে সাক্ষাৎ করতে দেয়নি। কিন্তু কোনো রকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়াই এ ধরনের রোগীর অপারেশন কেন করা হলো—এমন প্রশ্নের জবাবে ডা. নুরুন নাহার নিপা বলেন, জেনারেল এনেসথেসিয়া দিয়ে সিজার করালে পরীক্ষার দরকার হয় না। আমি আগের রিপোর্টগুলো দেখেছি। তাছাড়া এনেসথিওলজিস্ট ডা. হুমায়ুন কবির আমাকে নিশ্চিত করেছেন রোগী অপারেশনযোগ্য। আর রোগীর পরিবারের কাছে বন্ডসই নিয়েই আমি অপারেশন করেছি। ঝুঁকির বিষয়গুলো তো রোগীর লোকজনের বোঝার কথা নয়। তাছাড়া এই হাসপাতালে তো আইসিইউ বা লাইফ সাপোর্টের ব্যবস্থা নেই, ইনকিউবেটরও নেই। প্রসূতি কিংবা নবজাতকের জটিলতা হতে পারে এ বিষয়গুলো কী আগে ভাবেননি—এমন প্রশ্নে ডা. নিপা বলেন, এসবের উত্তর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দিতে পারবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow