Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১২ জানুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ জানুয়ারি, ২০১৭ ২৩:১৬
লিটন হত্যার পর আনন্দে মিষ্টি বিতরণ করায় গ্রেফতার ১
সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি

জাতীয় সংসদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি টিপু মুন্সী এমপি বলেছেন, এমপি মনজুরুল ইসলাম লিটনকে যারা হত্যা করেছে তাদের কেউই ছাড়া পাবে না। তাদেরকে আইনের আওতায় শাস্তি পেতেই হবে। টিপু মুন্সী গতকাল লিটনের কবর জিয়ারত শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন। এদিকে লিটন হত্যার পর আনন্দে মিষ্টি বিতরণ করায় মতিউর রহমান নামে এক ব্যক্তিকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। তাকে গতকাল বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের জামালের হাটে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। তার পিতার নাম মরহুম মাহাতাব উদ্দিন।

কবর জিয়ারত : বীর মুক্তিযোদ্ধা টিপু মুন্সী গতকাল লিটনের কবর জিয়ারতের পর সাংবাদিকদের বলেন, উগ্র জঙ্গিবাদের আশ্রয় নিয়ে লিটনকে হত্যা করা হয়েছে। তিনি বলেন, সুন্দরগঞ্জে ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি ও তার পরবর্তী সময়ে চার পুলিশ হত্যা, ছাত্রলীগ নেতা খলিলুর রহমান মামুন ও রিকশাচালক শরিফুল ইসলামকে হত্যাসহ ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও নাশকতার সঙ্গে জড়িত যে সব জামায়াত-শিবিবের আসামি আইনের ফাঁকফোকরে জামিনে এসে এমন হত্যাকাণ্ডসহ নাশকতা চালাচ্ছে। এ সরকার তাদের কোনো অবস্থাতেই রেহাই দেবে না এ ব্যাপারে নিশ্চিত থাকুন। লিটনের কবর জিয়ারতের সময় টিপু মুন্সীর সঙ্গে ছিলেন, অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ এমপি ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি হোসনে আরা লুত্ফা। পরে তিনি সঙ্গীদের নিয়ে নিহত এমপি লিটনের শোকাহত পরিবারের সঙ্গে দেখা করে সমবেদনা জানান।

গত ৩১ ডিসেম্বর দুর্বৃত্তের গুলিতে এমপি লিটন মারা যান। এতে সুন্দরগঞ্জের সর্বত্র সাধারণ মানুষ শোকে মুহ্যমান হয়ে পড়ে। কিন্তু মতিউর রহমান গত মঙ্গলবার রাতে আনন্দ প্রকাশ করার জন্য জামালেরহাটে মিষ্টি বিতরণ করে। বিষয়টি গোয়েন্দা সংস্থার নজরে যায়। এর পরে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সুন্দরগঞ্জ থানা ডিউটি অফিসার এসআই আবদুল জলিল মণ্ডল জানান, মতিউরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তার বিরুদ্ধে হত্যা মামলাসহ নাশকতার একাধিক মামলা রয়েছে।

up-arrow