Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০২:৪৪
কর্মীদের মূল্যায়ন না করলে দলীয় মনোনয়ন পাবেন না : কাদের
বাগেরহাট প্রতিনিধি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, কর্মীদের মূল্যায়ন না করলে বড় নেতা হলেও আগামীতে তারা দলীয় মনোনয়ন পাবেন না। পকেট কমিটি করে বসন্তের কোকিলদের দলে ঠাঁই দিলে সেসব নেতারও দলে স্থান হবে না। তৃণমূলের কর্মীরাই হচ্ছেন আওয়ামী লীগের প্রাণ। গতকাল দুপুরে বাগেরহাট খানজাহান আলী কলেজ মাঠে জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠন করতে সার্চ কমিটির কাছে গতকাল পাঁচজনের নাম পাঠিয়েছে। ওই নাম থেকে কাউকে নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ না করা হলেও এর প্রতিবাদ করব না।

রাষ্ট্রপতি যাকে উপযুক্ত মনে করে নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ দেবেন, আওয়ামী লীগ তাকেই গ্রহণ করবে। নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ নিয়ে বিএনপিকে অহেতুক জল ঘোলা না করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী সংসদ নির্বাচন শেখ হাসিনার অধীনেই হবে। আপনারাও অংশ নেবেন। বিএনপির উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, তারা এখন পথহারা পথিক। তারা রাজপথে আন্দোলনে ব্যর্থ। ইতিমধ্যে পদ্মা সেতুর ৪০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। এ সেতুর কাজ নির্ধারিত সময়ে শেষ হওয়ার পর দক্ষিণাঞ্চলের অর্থনীতিতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসবে। প্রতিনিধি সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ব্যর্থতার হতাশায় বিএনপি এখন বেপরোয়া। আন্দোলন-সংগ্রামে আওয়ামী লীগের ঐতিহ্য তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার বা বিরোধী দল, যেখানেই থাকুক, সব সময় রাজপথে থাকে। আওয়ামী লীগ একটি বড় দল। দলে ছিটেফোঁটা সমস্যা থাকতেই পারে। যারা দলের পরগাছা, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে আওয়ামী লীগ।

বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ডা. মোজাম্মেল হোসেন এমপির সভাপতিত্বে প্রতিনিধি সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা এস এম কামাল হোসেন, আমিরুল আলম মিলন, শেখ হেলাল উদ্দিন এমপি, মীর শওকাত আলী বাদশা এমপি, তালুকদার আবদুল খালেক এমপি, হ্যাপী বড়াল এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ কামরুজ্জামান টুকু, সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ, শারমিন সুলতানা লিলি, নকীব নজিবুল হক নজু প্রমুখ।

up-arrow