Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ, ২০১৭

প্রকাশ : শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০২:৩৩
‘কত রোহিঙ্গা প্রবেশ করেছে তার সঠিক হিসাব নেই’
নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশে কত রোহিঙ্গা প্রবেশ করেছে তার কোনো সঠিক হিসাব বা পরিসংখ্যান সরকারের কাছে নেই বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। গতকাল সকালে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদর দফতরে সীমান্ত অধিনায়ক সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

‘৬৫ হাজার মিয়ানমারের নাগরিক বাংলাদেশে এসেছে’ বলে যে পরিসংখ্যান বেরিয়েছে— তা সঠিক নয় বলে বিজিবির মহাপরিচালক যে মন্তব্য করেছেন, সে বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা তো এখনো গুনে ফিগারটা দেখিনি। একেকজন একেক রকম বলেছেন। কেউ বলছেন ৪৫ হাজার, কেউ ৬৫ হাজার। সেটাই মহাপরিচালক বলেছেন। ’ সীমান্ত হত্যা কেন বন্ধ হচ্ছে না জানতে চাইলে তিনি বলেন, বহু কারণে বর্ডার কিলিং হয়। সে সমস্ত কারণ চিহ্নিত হচ্ছে। ক্রমান্বয়ে এটা কমছে। আমরা তা থেকে উত্তরণের চেষ্টা করছি। আজ থেকে ১০ বছর বা পাঁচ বছর আগের হিসাব করলে দেখবেন অনেক কমে গেছে। প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে আমাদের পারস্পরিক সম্পর্ক বেশ ভালো। তাই আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের কাজ করা হচ্ছে।

সীমান্ত সুরক্ষায় বড় চ্যালেঞ্জ এখন কী— জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সীমান্তে আমাদের সবচেয়ে বড় প্রতিবেশী দেশ ভারত। তাদের সঙ্গেই আমাদের সিংহভাগ সীমান্ত। যে এলাকায় বিএসএফ ও বিজিবি সদস্যরা দায়িত্ব পালন করে সেখানে ছয়জন বিএসএফের বিপরীতে একজন বিজিবি কাজ করে। আমরা এ সমস্যা উত্তরণে আমাদের সদস্য সংখ্যা বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছি।

অধিনায়ক সম্মেলনে বিজিবির বিভিন্ন ব্যাটালিয়নের অধিনায়কসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশ নেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ প্রসঙ্গে বলেন, ব্যাটালিয়ন কমান্ডারদের সম্মেলনে তারা কিছু সুবিধা-অসুবিধার কথা জানিয়েছেন। ক্রমান্বয়ে সেগুলোর সমাধান করা হবে। তারা সীমান্ত সড়ক তৈরির কথা বলেছেন। ও বিষয়ে নীতিগতভাবে সবাই একমত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীও দিকনির্দেশনা দিয়েছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow