Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : সোমবার, ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০২:৩৬
আটক ১১ ভুয়া ডিবি পুলিশ
নিজস্ব প্রতিবেদক
bd-pratidin

ওরা চলে বিলাসবহুল গাড়িতে। পরনে থাকে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) জ্যাকেট, কোমরে গোঁজা পিস্তল, হাতে হ্যান্ডকাফসহ অন্যান্য সরঞ্জাম। বোঝার উপায় নেই, তারা ভুয়া ডিবি পুলিশ। গভীর রাতে প্রাইভেটকার, সিএনজি বা রিকশার যাত্রীদের ডিবি পরিচয়ে জিম্মি করে গাড়িতে তুলে নেয়। সর্বস্ব কেড়ে নেওয়ার পর ফেলে দেওয়া হয় ভিকটিমদের। অবশেষে প্রকৃত ডিবি পুলিশই পাকড়াও করল ১১ জন ভুয়া ডিবি সদস্যকে। এরা হলো— ইউসুফ কাজী, আলাউদ্দিন আলী, আকাশ রহমান মিন্টু, আফসার আলী, ফারুক হোসেন, আবদুল মালেক মিয়া, মাসুদ পারভেজ, শাহীন কাজী, লিটন শেখ, মাসুম গাজী ও আসলাম শেখ।

গতকাল দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ডিবির যুগ্ম কমিশনার আবদুল বাতেন। তিনি বলেন, রাজধানীতে এ ধরনের ভুয়া ডিবি পুলিশের ৬-৭টি চক্র সক্রিয়। শনিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডিবির খিলগাঁও জোনাল টিম সবুজবাগ এলাকায় ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে একটি চক্রের ১১ জনকে গ্রেফতার করে। তবে সাতজন পালিয়ে যায়। তাদের বিরুদ্ধে সবুজবাগ থানায় দুটি মামলা করা হয়। তাদের কাছ থেকে ৩টি গাড়ি, ৫ রাউন্ড গুলি, তিনটি ম্যাগাজিন, ৩টি বিদেশি পিস্তল, দুটি দেশীয় পাইপগান, একটি ওয়াকিটকি, ৫টি ডিবি পুলিশের জ্যাকেট, ৫টি হ্যান্ডকাপ ও একটি ব্যাগ উদ্ধার করা হয়। যুগ্ম কমিশনার বলেন, গ্রেফতারকৃতরা রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ছিনতাই ও ডাকাতি করে থাকে। গ্রেফতারকৃতরা এর আগে কতগুলো ঘটনা ঘটিয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। তবে রিমান্ডে এনে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। আবদুল বাতেন বলেন, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ইউসুফ কাজীকেই দলনেতা মনে হচ্ছে। ছিনতাই বা ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত গাড়িগুলো ভাড়া করে আনা। কোনো কোনো ক্ষেত্রে তারা গাড়িচালককে ম্যানেজ করে ফেলে। কখনো আবার তারা নিজেদের লোক দিয়ে গাড়ি চালায়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow