Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৪৯
সেই কন্টেইনারে মিলেছে টিভি ও টেলিফোন সেট
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রাম বন্দরে মিথ্যা ঘোষণায় আনা সেই কন্টেইনারে পাওয়া গেছে সনি ব্রান্ডের ১৬২টি এলইডি টেলিভিশন এবং ঘোষণার অতিরিক্ত ৮৪৮ পিস টেলিফোন সেট। গতকাল চালানটির শতভাগ কায়িক পরীক্ষা শেষে এ বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর।

  এর আগে মিথ্যা ঘোষণা এবং ঘোষণার অতিরিক্ত পণ্য আমদানি করে ঢাকার পুরানা পল্টন এলাকার এমএম ইন্টারন্যাশনাল ৩০ লাখ টাকা ফাঁকি দেওয়ার চেষ্টা করেছিল আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের সহকার পরিচালক তারেক মাহমুদ বলেন, ঢাকার পুরানা পল্টন এলাকার এমএম ইন্টারন্যাশনাল সিঙ্গাপুর থেকে ৪ হাজার ৫০০ টেলিফোন সেট ঘোষণা দিয়ে চালানটি আমদানি করে।

আমদানিকারকের পক্ষে গত ১১ জানুয়ারি বিল অফ এন্ট্রি (৫৪৪৭৭) দাখিল করে সিএন্ডএফ প্রতিষ্ঠান অর্পিতা অ্যাসোসিয়েট। টেলিফোন সেট ঘোষণা দিয়ে উচ্চ শুল্কের পণ্য আনা হয়েছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে চালানটি আটক করা হয়। গতকাল  কায়িক পরীক্ষায় মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে পণ্য আমদানির সত্যতা পাওয়া যায়। তিনি বলেন, ঘোষণা বহির্ভূতভাবে আনা ১৬২ পিস এলইডি টিভি পাওয়া যায়। এর মধ্যে ৫৬ পিস ৩২ ও ১০৬ পিস ২৪ ইঞ্চি টিভি। এছাড়া ৪ হাজার ৫০০ টি টেলিফোন সেট আমদানির ঘোষণা দিয়ে আনা হয় ৫ হাজার ৩৪৮ পিস। এতে আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান প্রায় ৩০ লাখ টাকা রাজস্ব ফাঁকির চেষ্টা করেছিল।

up-arrow