Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০২:০৮
বাংলাদেশ প্রতিদিনে সংবাদ
হানিফ ফ্লাইওভার থেকে বাসস্টেশন অপসারণে হাইকোর্টে রিট
নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর গুলিস্তান-যাত্রাবাড়ী মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার থেকে বাসস্টেশন ও ফ্লাইওভারে ওঠার সিঁড়ি অপসারণের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন দায়ের করা হয়েছে। গতকাল হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আবেদনটি দাখিল করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সাইফুল ইসলাম উজ্জ্বল।

গত বছরের ১৫ নভেম্বর ‘বাসস্ট্যান্ড হচ্ছে হানিফ ফ্লাইওভারে!’ এবং গত ৭ জানুয়ারি ‘ভয়ঙ্কর এক ফ্লাইওভার’ শিরোনামে বাংলাদেশ প্রতিদিনে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে এ রিট করা হয়। রিটে স্বরাষ্ট্র সচিব, সড়ক ও  সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব, পুলিশের আইজি এবং ঢাকা দক্ষিণের মেয়রসহ ১২ জনকে বিবাদী করা হয়েছে। আইনজীবী সাইফুল ইসলাম জানান, যাত্রাবাড়ী ফ্লাইওভারে ওঠার জন্য ৬ থেকে ৭টি সিঁড়ি ও বাসস্টেশন রয়েছে। এসব  স্টেশনে বাস ও লেগুনা থামিয়ে যাত্রী ওঠানামা করার কারণে অনেক সময় সড়ক দুর্ঘটনা ঘটছে। গত তিন চার মাসে ফ্লাইওভারের ওপরে ১০ জনের বেশি লোক মারা গেছেন।

এ ছাড়া বাসস্টেশন থাকার কারণে প্রায়ই যানজট থাকে। বাংলাদেশের অন্যান্য ফ্লাইওভারে সিঁড়ি ও বাসস্টেশন নেই। এসব যুক্তি উল্লেখ করে ফ্লাইওভারে বাসস্টেশন ও সিঁড়ি অপসারণ চেয়ে রিটটি করা হয়েছে। এর আগে বাসস্টেশন বন্ধ ও সিঁড়ি অপসারণ চেয়ে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি স্বরাষ্ট্র সচিব, সড়ক ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব, পুলিশের আইজিপি এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়রকে আইনি নোটিশ দেওয়া হয়।

কিন্তু নোটিশের যথাযথ জবাব না পাওয়ায় এ রিট করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ৭ জানুয়ারি প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, রাজধানীর উড়ালসড়কে ভায়াবহ সব দুর্ঘটনা ঘটছে। বিশেষ করে তিন বছর আগে উদ্বোধন করা গুলিস্তান-যাত্রাবাড়ী মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভার যাত্রীদের জন্য বিপজ্জনক স্থাপনা হয়ে উঠেছে। গত দুই বছরে এই ফ্লাইওভারের বিভিন্ন পয়েন্টে অসংখ্য দুর্ঘটনা ঘটছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow