Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : রবিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০১:৫৫
সুরঞ্জিত অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ চেয়েছিলেন
ড. কামাল
নিজস্ব প্রতিবেদক

সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. কামাল হোসেন বলেন, অন্যায়কে অন্যায় বলার সাহস সুরঞ্জিতের সব সময় ছিল। সব সময় তিনি সুস্থ রাজনীতি করেছেন।

অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ চেয়েছিলেন জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত। তরুণ প্রজন্মকে সুরঞ্জিতের কথা জানাতে হবে। সাবেক মন্ত্রী প্রয়াত সংসদ সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের স্মরণসভায় ড. কামাল এ কথা বলেন। বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ গতকাল রাজধানীর বিএমএ মিলনায়তনে এই স্মরণসভার আয়োজন করে। ঐক্য পরিষদের সভাপতি হিউবার্ট গোমেজ এতে সভাপতিত্ব করেন।

 এতে আরও বক্তব্য দেন প্রবীণ সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কামাল লোহানী, সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রানা দাশ গুপ্ত, সাবেক সাধারণ সম্পাদক নিম চন্দ্র ভৌমিক, প্রবীণ আইনজীবী আমিরুল ইসলাম, অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামান, আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জীব দ্রং ও সুরঞ্জিত সেনের স্ত্রী জয়া সেনগুপ্ত।

কামাল লোহানী বলেন, পাকিস্তান আমলে ঢাকায় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার পর আমরা যে মিছিল বের করেছিলাম সেই মিছিলে সুরঞ্জিত ছিলেন। কখনোই তিনি সাম্প্রদায়িকতাকে মেনে নেননি। মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, সুরঞ্জিত আমাদের মাঝে চিরঞ্জীব হয়ে থাকবেন।

রানা দাশ গুপ্ত বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সাব সেক্টর কমান্ডার ছিলেন সুরঞ্জিত সেন। আমিরুল ইসলাম বলেন, ১৯৭০ সালে সারা দেশে যখন আওয়ামী লীগের জয়জয়কার, তখন সুরঞ্জিত সেন অন্য দল থেকে নির্বাচিত হয়ে আমাদের চমকে দিয়েছিলেন। এটিএম শামসুজ্জামান বলেন, সুরঞ্জিত সেনের মতো আলোকিত মানুষের কথা বললে নিজের ভিতরটা উজ্জ্বল হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow