Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ১৮ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৮ মার্চ, ২০১৭ ০০:০৯
কর অবকাশ সুবিধা চান সোলার নির্মাতারা
নিজস্ব প্রতিবেদক

সৌরবিদ্যুৎ শিল্পের জন্য পৃথক নীতিমালা এবং কর অবকাশ সুবিধা চাইছে সোলার মডিউল ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ। সংগঠনটি বলছে, বিদেশ থেকে নিম্নমানের সোলার প্যানেল আমদানির কারণে জনগণ ঠকছে।

এ শিল্পের জন্য সুনির্দিষ্ট ও কার্যকর নীতিমালা না থাকায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন দেশীয় বিনিয়োগকারীরা। ঋণের উচ্চ সুদের হারসহ বিভিন্ন কারণে সৌর প্যানেল উৎপাদনকারী ৯টি প্রতিষ্ঠানের প্রায় ২০০ কোটি টাকার বিনিয়োগ ঝুঁকির মুখে রয়েছে। সোলার মডিউল ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (এসএমএমএবি) এক আবেদনে এনবিআরকে এ আহ্বান জানায়।

 

ইডকল-এর হিসাব অনুসারে, ‘আমাদের ব্যবহূত জ্বালানির মাত্র এক শতাংশ নবায়নযোগ্য শক্তি থেকে উৎপাদিত। ২০২১ সালের মধ্যে জ্বালানি মিশ্রণে ১০ শতাংশ নবায়নযোগ্য জ্বালানি থাকবে বলে সরকার প্রাক্কলন করেছে। সেক্ষেত্রে ২০২১ সালে নবায়নযোগ্য জ্বালানিনির্ভর বিদ্যুৎ উৎপাদন ২ হাজার ৪০০ মেগাওয়াট ছাড়িয়ে যাবে। এর মধ্যে সিংহভাগই হবে সৌরবিদ্যুৎ। ’

সোলার মডিউল ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি মনোয়ার মেজবাহ মঈন বলেন, সরকারের গৃহীত পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০১৭ সাল নাগাদ আরও ৩০ লাখ পরিবারকে সৌরবিদ্যুৎ দেওয়ার কথা।   সৌর প্যানেলের আমদানি বন্ধ না হলে সরকারের এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে প্রায় ১১০০ কোটি টাকা দেশের বাইরে চলে যাবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই পাতার আরো খবর
up-arrow