Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : রবিবার, ১৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ মার্চ, ২০১৭ ০২:১৮
পেট্রোকেমিক্যাল ও মোম রপ্তানি করবে ভারত
বাংলাদেশ-ভারত দ্বিতীয় জ্বালানি সংলাপ
নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে দ্বিতীয় জ্বালানি সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে গতকাল এ সংলাপ হয়।

বাংলাদেশের পক্ষে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব নাজিম উদ্দিন চৌধুরী এবং ভারতের পক্ষে পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রণালয়ের সচিব কে ডি তৃপদি সংলাপে নেতৃত্ব দেন। এতে আগামী দিনের জ্বালানি সংকট মোকাবিলায় উভয় দেশই পারস্পরিক সহযোগিতার ওপর গুরুত্বারোপ করে এবং সহযোগিতার ক্ষেত্র বাড়াতে ঐকমত্যে পৌঁছায়। দ্বিতীয় জ্বালানি সংলাপে বাংলাদেশের অফশোরে ওএনজিসি ভিদেশ লিমিটেডের অনুসন্ধান কাজ, পেট্রোনেট কর্তৃক এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণ, আইওসিএল কর্তৃক এলএনজি সরবরাহ প্রস্তাব, তাপি পাইপ লাইনে সংযুক্ত, ভারতীয় নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে তুর্কমেনিস্তান ও ইরান থেকে গ্যাস আমদানি বিষয়ে আলোচনা হয়। এ ছাড়া মিয়ানমার থেকে গ্যাস আমদানিতে যৌথ উদ্যোগ গ্রহণ, নোমালিগড় থেকে ডিজেল আমদানি, আইওসিএল কর্তৃক এলপিজি প্লান্ট ও টার্মিনাল এবং ব্লু ইকোনমি বিষয়েও আলোচনা হয়। এ সময় ভারতের প্রতিনিধিরা বাংলাদেশের কাছে পেট্রোকেমিক্যাল ও মোম রপ্তানির প্রস্তাব দেন।

ভারতের পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রণালয়ের সচিব কে ডি তৃপদি বলেন, ভারতের পক্ষ থেকে বাংলাদেশের জ্বালানি খাতের উন্নয়নের জন্য সহযোগিতা অব্যাহত রাখা হবে। আর নাজিম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ভারত-বাংলাদেশের মধ্যকার বিদ্যমান সম্পর্ক আরও জোরদারে সংলাপ ও সহযোগিতার কোনো বিকল্প নেই।

এর আগে ভারতের দিল্লিতে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার প্রথম জ্বালানি সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। আর দিল্লিতে দুই দেশের মধ্যে তৃতীয় সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে ২০১৮ সালের মার্চে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow