Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : রবিবার, ১৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ মার্চ, ২০১৭ ০২:১৯
শিক্ষানবিস আইনজীবী ফোরামের মানববন্ধন
নিজস্ব প্রতিবেদক

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি ডিগ্রিধারী শিক্ষানবিস আইনজীবীদের বার কাউন্সিলে নিবন্ধন করতে নির্ধারিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগসহ পাঁচ দফা দাবি জানিয়েছে অধিকারবঞ্চিত শিক্ষানবিস আইনজীবী ফোরাম। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও সমাবেশে এ দাবি জানান তারা।

দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণাও দেন বক্তারা। ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলা থেকে আসা তিন শতাধিক শিক্ষানবিস আইনজীবী তাদের দাবিসংবলিত ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেন।

এ সময় সংগঠনের আহ্বায়ক রামচন্দ্র দাস বলেন, এরই মধ্যে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দুই বছর মেয়াদি কয়েক হাজার এলএলবি ডিগ্রিধারী বার কাউন্সিলে অন্তর্ভুক্তি পরীক্ষায় পাস করে অ্যাডভোকেট হিসেবে দক্ষতা ও সুনামের সঙ্গে আইন পেশায় কাজ করছেন।

কেউ কেউ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে বিচারক হিসেবে কর্মরত আছেন। তিনি বলেন, দারুল ইহসানের মামলা উপলক্ষ করে ২০১৪ সালের ১৩ নভেম্বরের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বাংলাদেশ বার কাউন্সিল এক নোটিসের মাধ্যমে প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করা এলএলবি ডিগ্রিধারীদের বার কাউন্সিলের অ্যাডভোকেট অন্তর্ভুক্তির পরীক্ষায় নিবন্ধন স্থগিত করে দেয়। ২০১৩ সালের আগে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই বছর মেয়াদি আইনের ডিগ্রিধারীদের নিয়মিত নিবন্ধনপ্রাপ্ত হয়ে অংশগ্রহণ করতে কোনো অসুবিধা ছিল না। দারুল ইহসানের মামলার আপিলের শুনানিতে ৪০ বছরের বেশি বয়সীদের অ্যাডভোকেট হিসেবে অন্তর্ভুক্তি না করার পক্ষে মত উঠে আসে। কিন্তু ইংল্যান্ডসহ কমন ল লিগ্যাল সিস্টেম অনুসরণকারী কোনো দেশেই আইন পেশায় প্রবেশের কোনো সর্বোচ্চ বয়সসীমা নেই। দাবি আদায়ের জন্য আগামী সপ্তাহে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেওয়া হবে বলেও জানান রামচন্দ্র দাস।

এ সময় আরও বক্তব্য দেন ফোরামের সদস্যসচিব হেলালী আজম, যুগ্ম সদস্যসচিব তাসনৌফা মালেক, সাংগঠনিক সম্পাদক হেলেনা খাতুন, প্রচার সম্পাদক আমানাতুল্লাহ প্রমুখ।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow