Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বুধবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৪৩
আইনমন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন
নিজস্ব প্রতিবেদক
bd-pratidin

বিএনপির আইনজীবীদের আইনগত জ্ঞান নিয়ে প্রশ্ন তুলে আইনমন্ত্রীর দেওয়া বক্তব্যের বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টে পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন হয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ও বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নেতারা গতকাল এ কর্মসূচি পালন করেন। আইনজীবী সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদিন বিএনপির আইনজীবীদের বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের দেওয়া বক্তব্য প্রত্যাহার চাওয়ার পর বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন বলেছেন, আইনমন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে বিএনপির আইনজীবীরা ঝড় তোলার চেষ্টা করছেন। খালেদা জিয়ার বিচারের জন্য কারাগারের ভিতরে আদালত স্থাপনকে বেআইনি বলায় তার আইনজীবীরা আইন জানেন না বলে রবিবার মন্তব্য করেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। এর প্রতিক্রিয়ায় গতকাল সকালে আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে বিএনপির আইনজীবীরা সংবাদ সম্মেলন করেন। এতে বক্তব্য রাখেন সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদীন। এরপর একই স্থানে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেন বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন।

 উল্লেখ্য, আইনজীবী সমিতিতে বিএনপি সমর্থকদের ও বার কাউন্সিলে আওয়ামী লীগ সমর্থকদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জয়নুল আবেদিন বলেন, ‘আইনমন্ত্রীর একটি উক্তি ‘খালেদার আইনজীবীরা আইন জানেন না’ অত্যন্ত দুঃখজনক এবং বেদনাদায়ক। তিনি একজন আইনজীবী, আইনমন্ত্রী এবং দায়িত্বশীল ব্যক্তি। কাজেই তার কাছ থেকে দেশের মানুষ তথা আইনজীবীরা এ রকম বক্তব্য আশা করেন না। আমরা মনে করি, তার এই বক্তব্য বাংলাদেশের আইনজীবীদের জন্য অপমানজনক। অতীতে এ ধরনের বক্তব্য প্রদান করে অনেকেই সদস্যপদ হারিয়েছেন।’ আইনমন্ত্রীকে আইনজীবীদের প্রতি অসৌজন্যমূলক বক্তব্য প্রত্যাহারের পাশাপাশি সংবাদ সম্মেলনে আশা করা হয় তিনি আইন এবং আইনজীবীদের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবেন। সংবাদ সম্মেলনে সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, সহসভাপতি গোলাম মোস্তফা, গোলাম রহমান ভূঁইয়া, কোষাধ্যক্ষ নাসরিন আক্তারসহ বিএনপি সমর্থিত সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে পাল্টা সংবাদ সম্মেলনে ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন বলেন, ‘এই অডিটরিয়াম আইনজীবী সমিতির পবিত্র অঙ্গন। কোনো দলের মঞ্চ হিসেবে ব্যবহূত হওয়ার জন্য নয়। আমাদের সময় কোনো দিন এটি হয়নি, করতে দেওয়া হয়নি। দুঃখের বিষয়, এখন এ ধরনের সম্মেলন হচ্ছে। এখানে আইনমন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে তারা ঝড় তোলার চেষ্টা করছেন।’ তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা আইন জানেন না— আইনমন্ত্রী এমন বক্তব্য কোন প্রেক্ষাপটে দিয়েছেন, তা আমাদের জানতে হবে। সেটা আপনারাও জানেন। খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা আইন জানেন না আইনমন্ত্রী তা বোঝাতে চাননি। তিনি এটা কথা প্রসঙ্গে বলেছেন।’ ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন বলেন, আইনের মধ্যে থেকেই এবং খালেদা জিয়ার নিরাপত্তার কারণেই কারাগারে আদালত স্থাপন করা হয়েছে। তিনি বলেন, তারা (বিএনপির আইনজীবীরা) এ বিচারকে প্রলম্বিত করার জন্য চেষ্টা করছেন। এই অঙ্গনটাকে রাজনীতির মঞ্চ হিসেবে ব্যবহূত না করে তা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান তিনি। সংবাদ সম্মেলনে বার কাউন্সিলের সদস্য শ ম রেজাউল করিম বলেন, আইনজীবী সমিতির ব্যানারকে ব্যবহার করে বেশ কিছুদিন ধরে একটি রাজনৈতিক দলের বিশেষ কিছু ফৌজদারি মামলার আসামিদের পক্ষে নানারূপ অনাকাঙ্ক্ষিত প্রচারণা চলছে। সেই প্রচারণা করতে গিয়ে বিচারব্যবস্থা, আইনের শাসন এবং আইনের অপব্যাখ্যাও দেওয়া হচ্ছে। এরূপ পরিস্থিতিতে বার কাউন্সিল নীরব ভূমিকা পালন করতে পারে না। সংবাদ সম্মেলনে আইনজীবী সমিতির সহসম্পাদক আবদুর রাজ্জাক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow