Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : রবিবার, ১১ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১০ নভেম্বর, ২০১৮ ২২:৪৫
সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়ার জন্য ৩০০ একর জমি দিলেন মমতা
কলকাতা প্রতিনিধি

বাংলাদেশ সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের জন্য কেন্দ্রকে ৩০০ একর জমি দিচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ। ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং-এর অনুরোধে সাড়া দিয়েই জমি দিতে সম্মত হয়েছে মমতা ব্যানার্জির সরকার। বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঠেকাতে এবং পাচারসহ যে কোনো সীমান্ত নাশকতা রোধে আন্তর্জাতিক সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের জন্য জমি অধিগ্রহণ করে তা কেন্দ্রের হাতে তুলে দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়ে মমতাকে চিঠি লিখেছিলেন রাজনাথ সিং। কিন্তু এতদিন সেই জমি দেওয়ার ব্যাপারে আপত্তি ছিল রাজ্য সরকারের। ফলে বেড়া দেওয়ার কাজেও বিলম্ব ঘটছিল। কিন্তু স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি পেয়ে অবশেষে তাতে সম্মতি দিলেন মমতা। আসলে রাজনাথের সঙ্গে মমতার ব্যক্তিগত সম্পর্ক খুব ভালো। তাছাড়া রাজনৈতিক মহলের ধারণা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মধ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গ্রহণযোগ্যতাও প্রশ্নাতীত। তাই সরকারের অন্দরে সমস্যা হলে রাজনাথকেই আসনে নামায় মোদি সরকার।

মন্ত্রণালয় সূত্রে খবর জমি পেয়ে যাওয়ায় খুব শিগগির বেড়া নির্মাণের কাজ শুরু হবে। বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সীমান্ত বিস্তৃত রয়েছে ৪০৯৬ কিলোমিটার। এর মধ্যে ২২১৬ কিলোমিটার সীমান্ত রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে।

এদিকে বাংলাদেশ, নেপাল ও পাকিস্তানের মতো প্রতিবেশী দেশগুলির সীমান্ত বরাবর ভারত সরকারের উদ্যোগে প্রস্তাবিত ৭টি সমন্বিত চেক পোস্ট (আইসিপি)-এর মধ্যে পাঁচটির স্থাপনের কাজ শেষ হয়েছে বলে জানানো হয়েছে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে। মন্ত্রণালয়ের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে ‘পণ্য ও যাত্রী পরিবহনের মসৃণ সুবিধার জন্য বাংলাদেশ সীমান্তে পেট্রাপোল ও আগরতলা আইসিপি, ভারত-নেপাল সীমান্তে রক্সৌল ও যোগবানী আইসিপি এবং পাকিস্তান সীমান্তে আত্তারি আসিপি ইতিমধ্যেই কাজ শুরু করেছে। ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ডাউকি এবং ভারত-মিয়ানমার সীমান্তে মোরে আসিপি স্থাপনের কাজও প্রায় সমাপ্তির পথে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow