Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৮:৩৬ অনলাইন ভার্সন
দ্বিচারি এবং প্রচণ্ড অসহিষ্ণু ড. কামাল জাতির সামনে উন্মোচিত
মোহাম্মদ এ. আরাফাত
দ্বিচারি এবং প্রচণ্ড অসহিষ্ণু ড. কামাল জাতির সামনে উন্মোচিত

আল বদর বাহিনী গঠন করে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর সাথে যুক্ত হয়ে ১৪ ডিসেম্বর বেছে বেছে বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করেছিল জামায়াতে ইসলামী। 

সেই ঘাতক জামায়াতের সাথে ঐক্য করে, একই প্রতীকে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়ে ড. কামাল হোসেন শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে, শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করতে গেছেন। এর মধ্য দিয়ে দ্বিচারিতার (Hypocrisy) সর্বোচ্চ উদাহরণ স্থাপন করলেন ড. কামাল। 

একাধিক সাহসী সাংবাদিক ড. কামালকে খুব সঙ্গত কারণেই প্রশ্ন করেছিলেন জামায়াতের সাথে একই প্রতীকে নির্বাচন প্রসঙ্গে। সাংবাদিকদের এই যুক্তিসঙ্গত প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে রেগে গেলেন এবং হুমকি দিলেন ড. কামাল। এমনকি সাংবাদিকদের টাকা খাওয়ার নোংরা অভিযোগও করলেন তিনি। কারণ, কোটি বাঙালির মনের গহীনে থাকা এই প্রশ্নের উত্তর জানা নেই ড. কামালের। তাই তো রেগে গিয়ে তার এই হুমকি, ধামকি! এ ছাড়া উপায় কী তার?

তবে, ড. কামাল হোসেনের ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা’ এবং ‘গণতন্ত্রের চেতনা’ উভয় চেতনারই স্বরুপ আজ প্রকাশিত হয়ে গেল জাতির সামনে। দ্বিচারি এবং প্রচণ্ড অসহিষ্ণু ড. কামাল হোসেন আজ জাতির সামনে উন্মোচিত হলেন। 

এই মুখোশধারী অসৎ এবং স্খলিতচরিত্র মানুষগুলোকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্ভাসিত জাতি নিশ্চয়ই প্রত্যাখ্যান করবে।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

up-arrow