Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ৩০ জুন, ২০১৬ ১৬:৪৪
আপডেট :
গ্লাসগোতে ড. ইউনূসের প্রতিকৃতি উন্মোচন
অনলাইন ডেস্ক
গ্লাসগোতে ড. ইউনূসের প্রতিকৃতি উন্মোচন

গ্লাসগো ক্যালেডোনিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ে গতকাল বুধবার (২৯ জুন) একটি আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে নোবেল বিজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের প্রতিকৃতি উন্মোচন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে স্থাপিত এই প্রতিকৃতিটি অঙ্কন করেন বিখ্যাত স্কটিশ চিত্রশিল্পী বৃটেনের শ্রেষ্ঠ প্রতিকৃতি-শিল্পীদের অন্যতম জেরাল্ড বার্নস। বিশ্ববিদ্যালয়ের নবনির্মিত মূল ভবনের ফটকে প্রতিকৃতিটি স্থাপন করা হবে।

এদিকে, ড. ইউনূস বৃটেনের বিখ্যাত রয়্যাল সোসাইটি অব এডিনবার্গের সদস্যদের উদ্দেশ্যে বক্তৃতা দিয়েছেন। ১৭৮৩ সালে প্রতিষ্ঠিত রয়্যাল সোসাইটি অব এডিনবার্গ স্কটল্যান্ডের শীর্ষস্থানীয় শিক্ষাবিদদের একটি খ্যাতিমান সংগঠন। এই সোসাইটির সদস্য বা ফেলোর সংখ্যা এখন প্রায় ১,৬০০ যাঁরা জ্ঞানের বিভিন্ন শাখা যেমন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, শিল্পকলা, মানবিক, সামাজিক বিজ্ঞান, ব্যবসা ও সরকারী প্রশাসন ইত্যাদি থেকে আগত। প্রফেসর ইউনূস জনাকীর্ণ এই বক্তৃতা অনুষ্ঠানে পৃথিবী জুড়ে সম্পদ কেন্দ্রীকরণ ও দারিদ্র থেকে উদ্ভূত বিভিন্ন চ্যালেঞ্জের উপর আলোকপাত করেন এবং সামাজিক ব্যবসার মাধ্যমে কীভাবে এই সমস্যাগুলো মোকাবেলা করা যায় এবং বাংলাদেশসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে এ বিষয়ে কী কী কাজ হচ্ছে তা তুলে ধরেন।

গত মঙ্গলবার অধ্যাপক ইউনূস গ্লাসগো ক্যালেডোনিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ে সদ্য গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশ্যে সমাবর্তন বক্তৃতা দেন। সমাবর্তন অনুষ্ঠান দু’দিন ধরে চলে। ড. ইউনূস পাঁচ বছর ধরে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর। অনুষ্ঠানে তিনি স্কুল ফর বিজনেস এন্ড সোসাইটি, স্কুল অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বিল্ট এনভায়রনমেন্ট এবং স্কুল অব হেল্থ এন্ড লাইফ সায়েন্সেসসহ  বিভিন্ন ফ্যাকাল্টি থেকে গ্র্যাজুয়েশন সমাপ্তকারী ২,৫০০ ছাত্র-ছাত্রীর প্রত্যেকের সাথে করমর্দন করেন।  

প্রসঙ্গত, গ্লাসগো ক্যালেডোনিয়ান বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশে গ্রামীণ হেলথকেয়ার ট্রাস্টের সাথে যৌথভাবে গ্রামীণ ক্যালেডোনিয়ান কলেজ অব নার্সিং প্রতিষ্ঠা করেছে। বাংলাদেশে মানসম্মত নার্সিং শিক্ষার তীব্র অভাব দুর করতে একটি সামাজিক ব্যবসা হিসেবে এই নার্সিং কলেজটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এছাড়াও গ্লাসগো ক্যালেডোনিয়ান বিশ্ববিদ্যালয় “ইউনূস সেন্টার ফর সোশ্যাল বিজনেস এন্ড হেলথ” নামে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি সেন্টার প্রতিষ্ঠা করেছে এবং “ইউনূস চেয়ার অন সোশ্যাল বিজনেস এন্ড হেলথ” নামে একটি চেয়ার সৃষ্টি করেছে। এই বিশ্ববিদ্যলয় চ্যান্সেলর ইউনূস বৃত্তি চালু করেছে এবং এ বছর এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একজন ছাত্র সামাজিক ব্যবসার উপর গ্র্যাজুয়েশন সমাপ্ত করেছে।

 

বিডি-প্রতিদিন/ ৩০ জুন, ২০১৬/ আফরোজ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow