Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ, ২০১৭

প্রকাশ : ১৮ জুলাই, ২০১৬ ১০:০২
আপডেট :
পর্তুগালে বাংলা মেলা
রনি মোহাম্মদ (লিসবন) পর্তুগাল
পর্তুগালে বাংলা মেলা

পর্তুগালের রাজধানী লিসবনের মার্তিম মনিজের কেন্দ্রস্থল বাঙালি অধ্যূষিত রুয়া দো বেনফরমসোর ও ইন্তেদেন্তেতে ''কামারা মিউনিসিপাল দি লিসবন'' এবং ''ইজেইএসি'' পর্তুগালের আয়োজনে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হলো দিনব্যাপী বাংলা মেলা’২০১৬।

মেলায় বাংলাদেশি খাবারের পাশাপাশি দেশীয় পোশাক ও বিভিন্ন দেশের পর্যটকদের মাঝে বাংলাদেশকে তুলে ধরার জন্য আয়োজন করা হয় বিউটিফুল বাংলাদেশ নামক প্রামাণ্য চিত্র, ফ্যাশন শো এবং কনসার্টের। মেলায় প্রবাসী বাংলাদেশি, পর্তুগীজ ছাড়াও বিভিন্ন দেশের পর্যটকদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যণীয়। শাড়ির সাথে বাঙালি সাজে বাংলাদেশি নারীর ছাড়াও পর্তুগীজ নানা বয়সী নারীদের উপস্থিতি মেলার সৌন্দর্য বাড়িতে তুলে। তাছাড়া রুয়া দো বেনফরমসোয় পর্তুগাল প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যাবসায়িরা লুঙ্গি-পাঞ্জাবি আর মাথায় গামছা বেধে নিজদের দোকানের পসরা সাজিয়ে বসতে দেখা যায়। মেলা উপলক্ষ্যে বাংলা জোন মার্তিম মনিজ যেন সেজেছিল একখণ্ড ছোট্ট বাংলাদেশে সাজে।

''বাংলা রেস্টুরেন্টে''র সৌজন্যে পর্তুগীজ ও বিভিন্ন দেশের পর্যটকদের মাঝে বাংলাদেশকে তুলে ধরার জন্য আয়োজন করা হয় ''বিউটিফুল বাংলাদেশ'' নামক একটি প্রামাণ্য চিত্র।  

দেশীয় পোশাক আর সংস্কৃতির মাধ্যমে অন্য দেশের পোশাক আর সংস্কৃতির সাথে সেতুবন্ধন তৈরি করার জন্য শারমিন মৌয়ের পরিচালনায় দেশীয় পোশাকের ফ্যাশন শো মেলাকে আরো আকর্ষণীয় করে তোলে। ফ্যাশন শো’র মডেল হিসেবে অংশ নেয় পর্তুগাল, ফ্রান্স, স্পেন, লুক্সেমবার্গ, ইতালি, জার্মান, ব্রাজিল, ভারত, পাকিস্তান, নেপালসহ প্রবাসী বাংলাদেশী ও শিশু কিশোররা। সব শেষ পর্তুগিজ শিল্পীদের কনসার্ট মেলাকে আরও প্রাণবন্ত করে তোলে।

মেলায় বাংলাদেশ দূতাবাস লিসবনের কর্মকর্তা ছাড়াও কমিউনিটির শীর্ষ এবং প্রবীণ নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিও ছিল উল্লেখ করার মতো।


বিডি-প্রতিদিন/ ১৮ জুলাই, ২০১৬/ আফেরোজ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
এই পাতার আরো খবর
up-arrow