Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল, ২০১৮ ০৯:৫০ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৭ এপ্রিল, ২০১৮ ১৪:৫৫
কমনওয়েলথ সম্মেলনে যোগ দিতে লন্ডনে প্রধানমন্ত্রী
অনলাইন ডেস্ক
কমনওয়েলথ সম্মেলনে যোগ দিতে লন্ডনে প্রধানমন্ত্রী
ফাইল ছবি
bd-pratidin

কমনওয়েলথভুক্ত সরকারপ্রধানদের শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে লন্ডনে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার ভোর ৫টা ৪০ মিনিটে লন্ডনের অবতরণ করে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী উড়োজাহাজ।

বিমানবন্দরে শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানান লন্ডনে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার নাজমুল কাওনাইন ও যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মের প্রতিনিধি নিল হল্যান্ড। 

ক্লারিডজ হোটেল পৌঁছালে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক, সহ-সভাপতি শাহ আজিজুর রহমান, হরমুজ আলী, যুগ্ম সম্পাদক নইম উদ্দিন রিয়াজ, মারুফ আহমদ চৌধুরী, আনোয়রুজ্জামান চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক শাহ শামীম আহমেদ, মানবাধিকার সম্পাদক সারব আলী, শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক আসম মিসবাহ, যুক্তরাজ্য যুবলীগের সভাপতি ফখরুল ইসলাম মধু ও সাধারণ সম্পাদক সেলিম আহমেদ খান, যুক্তরাজ্য  স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সাদ  আহমেদ খান, সাধারণ সম্পাদক সামছুল আলম বাচ্ছু , যুক্তরাজ্য ছাত্রলীগের সভাপতি তামিম আহমেদ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত জয়, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম, সাবেক ছাত্রনেতা প্রশান্ত ভূষণ বড়ুয়া, ইউরোপ আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক এম.এ.গনি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ড. বিদ্যুৎ বড়ুয়া, স্পেন আওয়ামী লীগ এর সভাপতি আখতার হোসেন, ফ্রান্স  আওয়ামী লীগ নেতা আতিকুজ্জামান। এসময় আওয়ামী লীগের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী তার ৬ দিনের যুক্তরাজ্য সফরকালে কমনওয়েলথ সরকার প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক এবং অন্যান্য অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। প্রধানমন্ত্রী রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠেয় কমনওয়েলথ নারী ফোরামের ‘এডুকেট টু এম্পাওয়ার : মেকিং ইকুইটেবল এন্ড কোয়ালিটি প্রাইমারী এডুকেশন এন্ড সেকেন্ডারী এডুকেশন এ রিয়েলিটি ফর গার্লস এক্রোস দ্য কমনওয়েলথ’ শীর্ষক অধিবেশনে বক্তব্য রাখবেন।

প্রধানমন্ত্রী বিকেলে যুক্তরাজ্যের মর্যাদাশীল থিঙ্ক ট্যাঙ্ক বৈদেশিক উন্নয়ন ইনস্টিটিউট (ওডিআই) আয়োজিত এক উচ্চ পর্যায়ের অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।তিনি ‘বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রগতি : নীতি, অগ্রগতি ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক এ অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

১৮ এপ্রিল শেখ হাসিনা এশীয় নেতাদের ‘ক্যান এশিয়া কিপ গ্রোইং?’ রাউন্ড টেবিলে অংশ নেবেন। বিকেলে তিনি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে আয়োজিত অভ্যর্থনা অনুষ্ঠান ও পরে নৈশভোজে যোগ দেবেন। ১৯ এপ্রিল শেখ হাসিনা ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে কমনওয়েলথ সরকার প্রধানদের বৈঠকের (সিএইচওজিএম) আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ও অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন।

শেখ হাসিনা কমনওয়েলথ মহাসচিব প্যাট্রিসিয়া স্কটল্যান্ড কিউসির দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। তিনি সরকার প্রধান ও তাদের পরিবারের সম্মানে রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের দেয়া সংবর্ধনা ও নৈশভোজে যোগদান করবেন।
২০ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী তিনটি ‘রিট্রিট সেশন’ ও শীর্ষ সম্মেলনের সমাপনী কার্যনির্বাহী অধিবেশনে অংশ নেবেন।

২১ এপ্রিল তিনি রয়েল কমনওয়েলথ সোসাইটি (আরসিএস) আয়োজিত শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী সরকার প্রধানদের জন্য সংবর্ধনা এবং রাণীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। একই দিনে প্রধানমন্ত্রী এক কমিউনিটি সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।এছাড়া শেখ হাসিনা শীর্ষ সম্মেলনের পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের সরকার প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। তিনি ২৩ এপ্রিল দেশে ফিরবেন। 

বিডি প্রতিদিন/১৭ জানুয়ারি, ২০১৮/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow