Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৯ জুন, ২০১৮ ১৩:০০ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৯ জুন, ২০১৮ ১৫:৫৩
বাংলাদেশি নারীকে বিয়ে করে আটক ভারতীয়
দীপক দেবনাথ, কলকাতা
বাংলাদেশি নারীকে বিয়ে করে আটক ভারতীয়
সংগৃহীত ছবি

স্ত্রী থাকা সত্ত্বেও ফুসলিয়ে এক বাংলাদেশি নারীকে বিয়ে করার অভিযোগে পুলিশের হাতে আটক হয়েছে ভারতের কেরালা রাজ্যের এক বাসিন্দা। দ্বিতীয় স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতেই কেরালার মাভেলিক্কারা শহরের বাসিন্দা অভিযুক্ত লিপিন পোনাপ্পান (২৯)-কে রবিবার আটক করে এরনাকুলাম সেন্ট্রাল পুলিশ

লিপিন পোনাপ্পানের বিরুদ্ধে প্রতারণাসহ একাধিক অভিযোগ আনা হয়েছে। সোমবার তাকে স্থানীয় একটি আদালতে তোলা হয়। ১৪ দিনের জেল হেফাজতের (জুডিশিয়াল কাস্টোডি) আদেশ দেয় আদালত।

এরনাকুলাম সেন্ট্রাল পুলিশ স্টেশনের সার্কেল ইন্সপেক্টর অননথালাল.এ সূত্রে খবর, সহপাঠীকে ভালবেসে বিয়ে করে সুখের সংসার করছিলেন। এরই মধ্যে চাকরি নিয়ে বিদেশ যায় লিপনের ভারতীয় স্ত্রী। সেখান থেকেই স্বামীর জন্য রুপি পাঠাতে থাকে। আর স্ত্রীর পাঠানো অর্থেই বিলাসবহুল জীবন ধারণ করছিল লিপিন।

২০১৪ সালে ফেসবুকে বাংলাদেশি নারীর সাথে পরিচয় হয় লিপিন পোনাপ্পানের। প্রথম বিয়ের কথা গোপন করে স্বচ্ছল পরিবারের সদস্য ওই বাংলাদেশি নারীর সাথে ধীরে ধীরে সম্পর্ক গড়ে তোলে লিপিন। জানা যায়, ওই নারী নিজের বিয়ে বিচ্ছেদের পর থেকে একা ছিলেন। ২০১৭ সালে হঠাৎ করেই ঢাকায় যান লিপিন, সেখানে নিজের ধর্ম পরিবর্তন করে ওই বাংলাদেশি প্রেমিকার সাথে দেখা করেন এবং তাকে বিয়ে করেন লিপিন।

এরপর ঢাকা থেকে দ্বিতীয় স্ত্রীকে কেরালায় নিয়ে আসেন লিপিন এবং ইনফো পার্কের কাছে একটি ফ্ল্যাটে নিয়ে তোলেন। পরবর্তীতে সেখান থেকে বাসা বদল করে চলে যানে এরনাকুলামের সাউথ ওভার ব্রিজের কাছের একটি ফ্ল্যাটে। এমনকি ওই বাংলাদেশি নারীর অর্থেই লিপিন প্রচুর গহনা ও গাড়ি কিনেছিলেন।

পরে লিপিনের মিথ্যার জাল ও প্রথম পক্ষের ভারতীয় স্ত্রীর কথা জানতে পারেন ওই বাংলাদেশি নারী। বিষয়টি নিয়ে দুই জনের মধ্যে প্রায়ই তর্কাতর্কি-কথা কাটাকাটিও হত। অন্য দিকে মধ্যপ্রাচ্যে কর্মরত লিপিনের ভারতীয় স্ত্রীও তার স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ের বিষয়টি জানতে পারেন এবং কেরালায় অর্থ পাঠানো বন্ধ করে দেন। আর বিদেশ থেকে অর্থ পাঠানো বন্ধ হতেই নিজের রূপ বদল করেন লিপিন। বিয়ের দেড় বছরের মাথায় ওই বাংলাদেশি নারীকে এরনাকুলামের ফ্ল্যাটে রেখে পালিয়ে যান লিপিন। এরপরই এরনাকুলাম সেন্ট্রাল পুলিশের দ্বারস্থ হন ওই বাংলাদেশি নারী। তার অভিযোগের ভিত্তিতেই লিপিনকে আটক করে পুলিশ।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow