Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৩:২৪ অনলাইন ভার্সন
নিউইয়র্কে যুবলীগের দু'গ্রুপে সংঘর্ষ, গ্রেফতার ৩
এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে :
নিউইয়র্কে যুবলীগের দু'গ্রুপে সংঘর্ষ, গ্রেফতার ৩

‘শেখ হাসিনার আগমণ-শুভেচ্ছা স্বাগত’ স্লোগানে যুবলীগের একটি মিছিল রাস্তা অতিক্রমের সময় যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির আহবায়ক তারিকুল হায়দার চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন গ্রুপের সাথে সংঘর্ষ হয়। এ অবস্থায় পুলিশ এসে তারিকুল হায়দার চৌধুরী, যুগ্ম আহবায়ক জামাল হোসেন এবং সেবুল মিয়াকে গ্রেফতারের সংবাদ পাওয়া গেছে।

গত বুধবার রাত ১০টার পর নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনের এ সংঘাতের ঘটনায় পথচারীসহ আশপাশের বাসিন্দার মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ ব্যাপারে রাত ১২টায় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ এ সংবাদদাতাকে বলেন, ‘আমরা ভেতরে ছিলাম। বাইরে ওরা গন্ডগোল করেছে। এর বেশী কিছু জানি না।’ 

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর এক সদস্য নাম গোপন রাখার শর্তে বলেন, ‘নেত্রী আসছেন, এজন্য শো-ডাউনের প্রতিযোগিতায় সামান্য একটু মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। এটা কোন বিষয় নয়। আমরা পুলিশ স্টেশনে গিয়ে সকলকেই মুক্ত করে আনবো।’ 

নিউইয়র্কের পুলিশ প্রশাসন জানিয়েছে যে, ওই অফিসের দরজা ভাংচুরের ঘটনায় মামলা হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে ৩ জনকে। তবে আহত কাউকে হাসপাতালে নেয়ার কথা পুলিশের জানা নেই। 

যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফরিদ আলম এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘২৩ সেপ্টেম্বর জননেত্রী শেখ হাসিনার আগমণের সময় এয়ারপোর্টে বড় ধরনের শো-ডাউনের পাশাপাশি ২৭ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে ভাষণদানের সময় বাইরে বড় ধরনের একটি সমাবেশের সমর্থনে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের মিছিল ওই এলাকা (৩৭ এভিনিউ এবং ব্রডওয়ে) প্রদক্ষিণকালে তারিকুল হায়দারসহ কয়েকজন হামলা চালালে এই সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে কমপক্ষে ৩ জন আহত হয়েছেন। এ সময় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের ভেতর থেকে মিছিলকারিদের ওপর চেয়ার নিক্ষেপের ঘটনাও ঘটেছে।’ ‘এক পর্যায়ে জ্বলন্ত সিগারেট নিক্ষেপ করা হয় মিছিলকারিদের উদ্দেশ্যে এবং তা জামাল হোসেনের গায়ে লাগে’-অভিযোগ যুবলীগ নেতার। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বাইরে যুবলীগের দুই গ্রুপের এই সংঘাতের সময় ভেতরে ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান, সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান এবং লুৎফুল করিম, প্রচার সম্পাদক হাজী এনাম দুলাল মিয়াসহ নেতৃবৃন্দ। 

ঘটনার ব্যাপারে জানতে চাইলে ড. সিদ্দিকুর রহমান এই প্রতিবেদককে বলেন, ‘ভেতরে আমরা মিটিং করছিলাম। সে সময় বাইরে থেকে দরজায় ধাক্কা-ধাক্কি করা হয়েছে। দরজার কাঁচ ভেঙে গেছে। এ সংবাদ জেনে পুলিশ এসে কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে। এটা আইনের দেশ। আইন অনুযায়ী সবকিছু হবে।’

গভীর রাতে পাওয়া সংবাদ অনুযায়ী, গ্রেফতারকৃতদের জামিনে মুক্ত করার দেন-দরবার চলছিল স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে। 

উল্লেখ্য যে, তিন বছর আগে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের কমিটি ভেঙে দিয়ে তারিকুল হায়দার চৌধুরীকে আহবায়ক করে ৬০ দিনের মধ্যে সম্মেলনের মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের নির্দেশ দেন যুবলীগ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী। আজ অবধি সম্মেলন হয়নি এবং কার্যকরী কমিটি গঠনের কোন উদ্যোগও নেয়া হয়নি। এ নিয়ে নেতা-কর্মীরা ক্ষুব্ধ এবং পাল্টা কর্মসূচি পালন করছেন জামাল-সেবুলের নেতৃত্বাধীন যুবলীগ। যুবলীগের তারিকুল গ্রুপিংয়ে মদদ রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের-এমন অভিযোগ বহু পুরনো।

বিডি-প্রতিদিন/২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

up-arrow