Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২১:৩৬
তিনি বলেছেন...
ইলিশ খাওয়ার আগে যাচাই করে নেবেন ৩০ কাঁটা আছে কিনা
ইলিশ মাছ
ইলিশ খাওয়ার আগে যাচাই করে নেবেন ৩০ কাঁটা আছে কিনা

কেমন আছেন?

— বেশি ভালো নারে ভাই।

 

কেন?

— দাম কমে যাওয়ায় এখন কেউই আমাদের পাত্তা দেয় না।

পাঙ্গাস থেকে চুনোপুঁটি সবাই আমাদের নিয়ে ঠাট্টা-মশকরা শুরু করছে।

 

ব্যাপার না। পহেলা বৈশাখ আসতে আসতে আবার আপনারা নিজেদের আগের স্ট্যাটাসে ফিরে যেতে পারবেন বলে আশা রাখি।

— লাইফটা কি আর ফেসবুক রে ভাই। যে আবার আগের স্ট্যাটাসে ফিরে যেতে পারব?

 

তো আগের অবস্থানে ফিরে যাওয়ার জন্য আপনারা কি কি পদক্ষেপ নিচ্ছেন?

—আপাতত ফেসবুক, নিউজপেপার আর রেডিও-টেলিভিশনে ইন্টারভিউ এবং বিভিন্ন টকশো করে যাচ্ছি নিজেদের একটু হাইলাইটে আনার জন্য।

 

— বাহ! এ জন্যই বলে প্রচারেই প্রসার। যাকগে, ফোনে একজন দর্শক আছেন। হ্যালো, দর্শক আপনার প্রশ্নটি করুন...

 

হ্যালো ইলিশ মাছ? আপনাকে দেখতে অনেক কিউট আর সুন্দর লাগছে।

 

—আরে ভাই, কতদিন আর অন্যের শিখিয়ে দেওয়া কথা বলবেন? পারলে নিজে থেকে কিছু বলুন।

 

সামনের দিনে দাম আরও কমে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন?

— না। তবে অন্য আতঙ্কে আছি। চায়না আবার নকল ডিমের মতো নকল ইলিশ মাছও তৈরি করে বাজারে ছেড়ে দিচ্ছে না তো!

 

আপনার ভালো লাগা সম্পর্কে কিছু বলুন?

— যখন আমাদের দাম অনেক চড়া থাকে তখন পুঁটি মাছ দিয়ে ভাত খেয়ে ফেসবুকে শেয়ার দেয় ইলিশ মাছ খাচ্ছে। এই ব্যাপারগুলো খুবই ভালো লাগে।

 

আর খারাপ লাগে—

— যখন দেখি ফেউয়া-চান্দনা মাছগুলোকে ইলিশ বলে বিক্রি হয় মানুষকে ধোঁকা দেওয়ার জন্য।

 

আচ্ছা, ফোনে আরেকজন দর্শক আছে। চলুন শুনে আসি তিনি কি বলেন...

কিরে ব্যাটা ইলিশ! পহেলা বৈশাখে তো খুব ভাব দেখাইছিলি! এখন কই গেল তোর সেই ভাব?

 

আমার মনে হয় লাইনটি কেটে গেছে। চলুন এবার অন্য প্রসঙ্গে আসি। আমাদের দেশে থাকতে আপনার কেমন লাগে?

— ভালোই লাগে। কারণ এটাই একমাত্র দেশ যেখানে ৩০০ টাকার এনার্জি বাল্ব মাত্র ১০০ টাকায় পাওয়া যায়। তাও আবার শুধু কোম্পানির প্রচারের জন্য!

 

আমাদের পাঠকের উদ্দেশ্যে কিছু বলুন—

—  আপনারা ইলিশ খান ভালো কথা তবে খাওয়ার আগে একবার যাচাই করে নিবেন। আসল ইলিশ কেনার আগে অবশ্য মাছের মধ্যে ৩০টা কাঁটা আছে কিনা দেখে নিবেন। কারণ কথায়ই তো আছে, ইলিশ মাছের ৩০ কাঁটা!

 

সাক্ষাৎকার : রবিউল ইসলাম সুমন

এই পাতার আরো খবর
up-arrow