Bangladesh Pratidin

মহাবিশ্ব

অথচ তোমার জন্য বসে থাকি অজুহাতের স্টেশনে—ইচ্ছাকৃত ফেল করে  আহ্নিকগতির ট্রেন! তুমি আসতে চেয়েছো অথবা চাও—এর বেশি কোনো কিছুই তো ঘটেনি; তোমার আসতে চাওয়াটা কেন এত ব্যঞ্জনা রচে আমার এলোমেলো ভাবনায়—আমি সেও বুঝি না! তুমি যদিবা আসোই—সেও তো নিজ কক্ষপথে ফিরে যাওয়ার জন্যই আসবে—এতটুকুও রয়ে যাবে না—রেখে…

অপেক্ষা

দহন দিনের দারুণ জ্বালা সয়ে পাহাড়সমান বিরহ ভার বয়ে এক-দুই-তিন দিন গুনছি স্বপ্নের এক জাল বুনছি মনের আকাশ জুড়ে আমার ওড়ে রঙিন ফানুস।   ব্যাকুল দৃষ্টি, হবে না তা ফিকে তাকিয়ে আকুল ও পথের দিকে উড়িয়ে আঁচল ঐ পথ দিয়ে হৃদয় মরুতে বৃষ্টি ঝরিয়ে আসে যদি সেই সুন্দরীতমা, আমার মনের মানুষ।

কাঁপা হাতের চিঠি

এখনও তার কাঁপা হাতের চিঠি আসে নীল খামে ভাঙা—বেহালার মরচে ধরা তারে বেদনার রাগ কষ্টের হলেও একাকিত্ব থাকে না আঁধারের গল্পের মতো।   যে আমার কেউ নয়, অথচ জোনাকীর আলো জ্বেলে নিরন্তর খসে যাওয়া উল্কাপিণ্ডের গল্প শোনাতে চায় অনিচ্ছায় হলেও গল্প শুনতে জানালায় কান পেতে রাখি।   মনে হয় ভালোবাসা নয় শুধুই সোনালি সকাল…
up-arrow