Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১৮ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৮ জুন, ২০১৬ ০০:৩০
অণুপ্রেরনীয়
কমেডিয়ান থেকে রাষ্ট্রপতি
কমেডিয়ান থেকে রাষ্ট্রপতি

গুয়াতেমালার প্রেসিডেন্টের নাম শুনেছেন? হুম, জিমি মোরালেসের কথা বলছি। সব কমেডিয়ানের আইকন। টিভি পর্দার একজন কমেডিয়ান থেকে পেশাদার রাজনীতিবিদ। এরপর সোজা দেশের শীর্ষ পদে আসীন হওয়ার গল্পের নায়ক। কমেডিয়ান হিসেবে জনপ্রিয় ছিলেন, কিন্তু সেটি যে রাষ্ট্রপতি বানিয়ে দেবে কে জানত?

 

শুরুতে ছিলেন একজন কমিডিয়ান অভিনেতা। হাস্যরসে মানুষের মন জয় করতেন। টেলিভিশনের পর্দার মাধ্যমে মানুষকে হাসাতেন, আনন্দ দিতেন। কখনো কল্পনাই করেননি রাষ্ট্রপতি বনে যাবেন। বলা হচ্ছে গুয়াতেমালার কমেডি অভিনেতা জিমি মোরালেসের কথা।

 

গত জানুয়ারির ঘটনা। সমগ্র বিশ্বজুড়ে আলোড়ন ঘটে গেল। গুয়াতেমালা যেন গোটা বিশ্বের আকর্ষণ। আর সেই আকর্ষণের মূল কেন্দ্র ছিলেন জিমি মোরালেস। সাধারণ একজন কমেডিয়ান তারকা থেকে সরাসরি মহানায়ক। তাও আবার গোটা দেশের প্রেসিডেন্ট! অবাক হলেও সত্য, জিমি মোরালেস হয়ে ওঠেন গুয়াতেমালায় প্রেসিডেন্ট। গত বছর অক্টোবর মাসে দুর্নীতির দায়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্ট পদচ্যুত হওয়ার পর দায়িত্বভার গ্রহণ করেন কমেডিয়ান এই তারকা। মোরালেসের জনপ্রিয়তা এতটাই তুঙ্গে ছিল যে, মূলধারার রাজনীতিকদের তিনি সহজেই পেছনে ফেলে দেন। দেশের মানুষের ইচ্ছাতে দেশটির রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ৭২ শতাংশ ভোট আসে তার।

 

২০১১ সালে ঘটনাচক্রে রাজনীতিতে নাম লিখিয়েছিলেন জিমি মোরালেস। তার পুরো নাম জেমস আর্নেন্তো মোরালেস কাবরেরা। কিন্তু রাজনীতিতে আসার পর থেকেই তার নাম বদলে তিনি হয়ে ওঠেন ‘জিমি মোরালেস’। আসলে রাজনীতিতে অংশগ্রহণের বছরই আনুষ্ঠানিকভাবে নামটি গ্রহণ করেন। নতুন নামে তিনি মিক্সকো শহরের মেয়র নির্বাচনের প্রার্থীও হন। সাধারণ মানুষের সমর্থন তার এতটাই বাড়ে যে তিনি হয়ে ওঠেন গুয়াতেমালার শক্তিশালী প্রতিপক্ষ। পড়াশোনার করে টেলিভিশনে কমিডিয়ান শো করতেন। বলা চলে পড়াশোনা চলাকালীন জিমির ভাগ্য ফিরেনি। তবে, ভাগ্যও যেন কৌতুক করেছে তার সঙ্গে। গরিবের সন্তান জেমস আর্নেন্তো মোরালেস কাবরেরা চার বছর আগেও ছিলেন কমেডিয়ান। মধ্য অ্যামেরিকার দেশটির সরকারে ব্যাপক দুর্নীতিই সুযোগ এনে দেয় রাষ্ট্রপতি হওয়ার।

গত বছরের ৩ সেপ্টেম্বর দুর্নীতির কেলেঙ্কারির কারণে পদত্যাগ করেন প্রেসিডেন্ট ওট্টো পেরেস মলিনা। তারপর দেশটিতে নতুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়। তখনো জিমি মোরালেস যে প্রেসিডেন্ট হবেন কেউ ভাবেননি। জিমি মোরালেস নির্বাচনে মোটামুটি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন এমন আশাও শুরুতে করা যায়নি। সাবেক ফার্স্টলেডি সান্দ্রা তরসকেই সম্ভাব্য বিজয়ী ধরে নিয়েছিলেন অনেকে। কিন্তু ভাগ্যের কী লিখন! নির্বাচনী প্রচার শুরুর পর থেকেই প্রেক্ষাপট বদলে যায়। ধীরে ধীরে ভিড় জমে মোরালেসের জনসভায়। সেই ভাগ্যরম্যে কোনো রকম রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা ছাড়াই গুয়াতেমালার বিখ্যাত টিভি কমেডিয়ান তারকা জিমি মোরালেস হয়ে ওঠেন রাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট।

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
এই পাতার আরো খবর
up-arrow