Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২১:৫০
কম্পিউটারের গতি বাড়াতে!
শনিবারের সকাল ডেস্ক
কম্পিউটারের গতি বাড়াতে!

চাইলে ঘরে বসেই সাধারণ কিছু কাজ করে কম্পিউটারকে দ্রুতগতির করতে পারে যে কেউ। যেমন, রিসেন্ট ফাইল অপসারণ, কম্পাইলেশন, পিফেচড ফাইল অপসারণ ইত্যাদি...

 

কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের নিত্যনৈমিত্তিক সমস্যা হচ্ছে পিসি স্লো হয়ে যাওয়া! আবার দেখা যায় কোনো গুরুত্বপূর্ণ কাজের মাঝখানে কম্পিউটার হ্যাং হয়ে বসে আছে। টেম্পোরারি ও জাংক ফাইল জমা হওয়াসহ ভাইরাস ইত্যাদি কারণে কম্পিউটার ধীরগতির হতে পারে। আসুন জেনে নেই কীভাবে ঘরে বসেই সাধারণ কিছু কাজ করে কম্পিউটারকে দ্রুতগতির করতে পারেন।

 

নিয়মিত ডিস্ক ডিফ্র্যাগ করুন

কম্পিউটারের ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ডাটাগুলোকে এক জায়গায় এনে পিসির গতি বাড়িয়ে দেয় ডিস্ক ডিফ্র্যাগমেন্টার। সপ্তাহে অন্তত এক থেকে দুবার ডিস্ক ডিফ্র্যাগ করলে সিস্টেমের গতি অনেক বেড়ে যায়। এজন্য  >Accessories>Szstem Tools>Disk Defragmenter- এ ক্লিক করলে ডিস্ক ডিফ্র্যাগ উইন্ডো ওপেন হবে। এখানে ড্রাইভ সিলেক্ট করে ক্লোজ বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর একটি মেসেজ আসলে দ্বিতীয় ড্রাইভটি সিলেক্ট করে আগের নিয়ম অনুসারে সবগুলো ড্রাইভ ডিফ্র্যাগ করে ফেলুন।

 

হিডেন টেম্পোরারি ফাইল অপসারণ

টেম্পোরারি ফাইলের মতোই হিডেন টেম্পোরারি ফাইল হিডেন টেম্পোরারি ফাইল মুছতে কিবোর্ডের উইন্ডোজ এবং জ বাটন একসঙ্গে চাপুন।

রান উইন্ডো এলে টাইপ করুন ও Enter চাপুন।

নতুন উইন্ডোতে টেম্পোরারি ফাইলগুলো প্রদর্শিত হলে ctrl এবং A একসঙ্গে চেপে সব সিলেক্ট করে Delete বাটন ক্লিক করুন।

 

মাউস স্পিড বৃদ্ধি করুন

মাউস ধীর গতিতে কাজ করলে আপনি চাইলেই সহজে মাউসস্পিড বাড়িয়ে নিতে পারেন। এজন্য Start>Run>Regedit লিখে ড়শ বাটনে ক্লিক করুন। একটি উইন্ডো ওপেন হবে। HKEY>CURRENT>USER>ControlPanel>Mouse>Mousespeed- -এ ডাবল ক্লিক করে মান বাড়িয়ে নিন।

 

পিসি ভাইরাসমুক্ত রাখুন

এটা এখন সবাই জানে কম্পিউটার ধীরগতি হওয়ার একটা সাধারণ কারণ হলো পিসি ভাইরাস আক্রান্ত হওয়া। ভাইরাসে আক্রান্ত হলে কম্পিউটার ধীর গতির হয়ে যায়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে বেশ কিছু সিস্টেম ফাইল ও প্রোগ্রাম নষ্ট হয়ে যেতে পারে। এজন্য সব সময় একটি আপডেট এন্টিভাইরাস দিয়ে কম্পিউটারের সব ড্রাইভ স্ক্যান করুন। কম্পিউটার অতিরিক্ত ভাইরাস আক্রান্ত হলে সি ড্রাইভটি ফরম্যাট করুন। আর সাধারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হলে System Restore করলেই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

 

টেম্পোরারি ফাইল অপসারণ

টেম্পোরারি ফাইল মুছতে কিবোর্ডের উইন্ডোজ এবং R বাটন একসঙ্গে চাপুন। রান উইন্ডো এলে টাইপ করুন temp এরপর Enter চাপুন। নতুন উইন্ডোতে টেম্পোরারি ফাইলগুলো প্রদর্শিত হলে ctrl এবং A একসঙ্গে চেপে সব সিলেক্ট করুন। Delete বাটন ক্লিক করুন। এরপর Continue দিন। কোনো ফাইল চালু অবস্থায় থাকলে তা আগে থেকে বন্ধ করে নিন।

 

প্রিফেচড ফাইল অপসারণ

প্রিফেচড ফাইলগুলোও কোনো কাজে লাগে না। তারপরেও এগুলো কম্পিউটারে থেকে যায়।

এই ফাইলগুলো মুছতে কিবোর্ডের উইন্ডোজ এবং R বাটন একসঙ্গে চাপুন। রান উইন্ডো এলে prefetch টাইপ করুন ও Enter চাপুন। নতুন উইন্ডোতে টেম্পোরারি ফাইলগুলো প্রদর্শিত হলে ctrl এবং A একসঙ্গে চেপে সব সিলেক্ট করুন। Delete বাটন প্রেস করে Continuব দিন। কোনো ফাইল চালু অবস্থায় থাকলে Skip বাটন ক্লিক করুন।

 

কম্পিউটারে বেশি র‌্যাম যোগ করুন

উচ্চ গতিসম্পন্ন কম্পিটার পেতে র‌্যামের কোনো বিকল্প নেই। উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন র‌্যাম অতিরিক্ত যোগ করলে একসঙ্গে অনেকগুলো প্রোগ্রাম অনায়াসে রান করতে পারবেন। সর্বোপরি পুরো সিস্টেমের গতি আগের চেয়ে অনেকাংশে বেড়ে যাবে।

 

রিসেন্ট ফাইল অপসারণ

রিসেন্ট ফাইল মুছতে কিবোর্ডের উইন্ডোজ এবং R বাটন একসঙ্গে চাপুন। রান উইন্ডো এলে recent টাইপ করুন ও Enter ক্লিক করুন। নতুন উইন্ডোতে টেম্পোরারি ফাইলগুলো প্রদর্শিত হলে ctrl এবং A একসঙ্গে চেপে সব সিলেক্ট করুন। Delete বাটন প্রেস করে Continue দিন।  

 

কম্পাইলেশন

কিবোর্ডের উইন্ডোজ এবং আর বাটন একসঙ্গে চাপুন। রান উইন্ডো এলে টাইপ করুন tree এবং ঊহঃবৎ ক্লিক করুন। এভাবে দুই থেকে তিনবার ট্রি রান করান।

এই পাতার আরো খবর
সর্বাধিক পঠিত
up-arrow