Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১০ জুলাই, ২০১৮ ১২:১৩ অনলাইন ভার্সন
যেসব দেশে ম্যাকডোনাল্ড'স নিষিদ্ধ
অনলাইন ডেস্ক
যেসব দেশে ম্যাকডোনাল্ড'স নিষিদ্ধ
bd-pratidin

আমেরিকার যুক্তরাষ্ট্রে ১০০ মাইল না হাঁটতেই আপনি ম্যাকডোনাল্ড'স রেস্তোরাঁর দেখা পাবেন। কিন্তু এমনও দেশ আছে যেখানে এই ফাস্ট ফুড ব্রান্ডের একটি রেস্তোরাঁও নেই। যার পেছনে রাজনীতি থেকে শুরু করে অর্থনীতিসহ নানা কারণ জড়িত।

বারমুডা: ১৯৯৫ সালের আগ পর্যন্ত এ দ্বীপটিতে মাত্র একটি ম্যাকডোনাল্ড'সের রেস্তোরাঁ ছিল। ১৯৮৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রে নাভাল এয়ার স্টেশনে সেটি প্রতিষ্ঠিত করা হয়। কিন্তু ১০ বছরের মাথায় সেটি বন্ধ করে দেয়া হয়। দ্বীপটিতে ১৯৯৯ সালে আবারও সেখানে রেস্তোরাঁ খোলার চেষ্টা করা হয়েছিল যা সফল হয়নি। দেশটিতে বিদেশী ফাস্ট ফুড আইন করে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

ইরান: যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ইরানের টানাপড়েন নতুন কিছু নয়। যুক্তরাষ্ট্রের ফাস্টফুড কোম্পানি ম্যাকডোনাল্ড'সের কোনো রেস্তোরাঁ সেখানে নেই। ইরান উল্টো ম্যাকডোনাল্ড'সের বিকল্প বের করেছে। দেশটিতে 'ম্যাশ ডোনাল্ডস' নামে ফাস্ট ফুড কোম্পানি আছে!

ম্যাসিডোনিয়া: ইউরোপের এই ছোট্ট দেশটিতে ম্যাকডোনাল্ড'সের সাতটি রেস্তোরাঁ ছিল। কিন্তু যে ব্যক্তি এসব রেস্তোরাঁগুলি চালাতেন ২০১৩ সালে তার লাইসেন্স বাতিল করায় সেগুলো বন্ধ হয়ে যায়। এখন ম্যাকডোনাল্ডসের একটি রেস্তোরাঁও নেই ম্যাসিডোনিয়ায়।

ইয়েমেন: মধ্যপ্রাচ্যের এ দেশটির অর্থনীতি এমনিতেই টালমাটাল। কয়জন নাগরিককেই বা ভোক্তা হিসেবে পাবে ম্যাকডোনাল্ড'স। তাই ইয়েমেনে কখনই রেস্তোরাঁ খোলার কথা ভাবেইনি ফাস্ট ফুড কোম্পানি। তাছাড়া আরেকটি ব্যাপারও আছে। চরমপন্থীরা হুমকি দিয়েছে, কেউ ইয়েমেনে ম্যাকডোনাল্ডসের শাখা খোলার সাহস দেখালে হামলা করা হবে।

মন্টেনিগ্রো: ছোট্ট এই দেশটিতে ব্যবস্থা স্থায়ী করা যা কী না তা দেখতে পরীক্ষামূলকভাবে ২০০৩ সালে ছোট একটি রেস্তোরাঁ চালু করেছিল ম্যাকডোনাল্ডস। কিন্তু দেশটির সরকারের পদক্ষেপে সেটি সফল হয়নি। তারা স্থানীয় কোম্পানির স্বার্থকেই বেশি প্রাধান্য দিয়েছিল এতে ম্যাকডোনাল্ডসের কৌশল মাঠে মারা যায়। 

উত্তর কোরিয়া: দেশটির সঙ্গে আমেরিকার যুক্তরাষ্ট্রের রেষারেষি পুরনো। আমেরিকান ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রমও তাই দেশটিতে সীমিত। একই হাল হয়েছে ম্যাকডোনাল্ড'সের ক্ষেত্রেও। যদিও টেলিগ্রাফ জানিয়েছিল, দেশটির অভিজাত ব্যক্তিরা নিজেদের জন্য প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়া থেকে চুরি করে ম্যাকডোনাল্ড'সের খাবার আনান।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow