Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ৬ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৫ জুন, ২০১৬ ২৩:৫৫
তবু জয়ের আশা
তাজিকিস্তানের বিপক্ষে ফিরতি ম্যাচ আগামীকাল
ক্রীড়া প্রতিবেদক
তবু জয়ের আশা

তাজিকিস্তানের বিপক্ষে ফিরতি ম্যাচ আগামীকাল। দুশানবেতে অ্যাওয়ে ম্যাচে ৫-০ গোলে হার মানে বাংলাদেশ। এতেই শক্তিশালী প্রতিপক্ষকে টপকিয়ে এশিয়ান কাপ ফুটবলে বাছাইপর্বে যাওয়ার আশা শেষ হয়ে যায়। অবশ্য সম্ভাবনা যে নেই তাও বলা যাবে না। হিসাবটা একেবারে সহজ, ঢাকায় তাজিকদের ৬-০ গোলে হারাতে পারলেই মামুনুলরা বাছাই পর্বে চলে যাবেন। শোচনীয় হারের পরও কোচ ক্রুইফ ফিরতি ম্যাচে জয়ের আশা করছেন। ধরলাম জিতে গেল কিন্তু ৬ গোলে কি হারানো সম্ভব? ফুটবল যারা দেখেন বা বুঝেন তাদের কথা বাদই দিলাম। কোনো শিশুকে জিজ্ঞাসা করলেও বলে দেবে ৬ গোলে জেতা কোনোভাবেই সম্ভব নয়। ভাগ্যক্রমে জয় পেলে ব্যবধান ১ বা বড় জোর ২ গোলে হতে পারে। তাহলে কি ঢাকায় তাজিকিস্তানকে হারাতে যাচ্ছে বাংলাদেশ? সত্যি বলতে কি ফুটবলে এখন যে করুণ অবস্থা তাতে বড় ব্যবধান নয় তাজিকিস্তানকে হারানোটাই বাংলাদেশের ফুটবল ইতিহাসে বড় প্রাপ্তি হবে। বলা যায় নতুন এক ইতিহাস সৃষ্টি হবে।

গত বছর বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ঢাকায় তাজিকিস্তানের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করেছিল বাংলাদেশ। প্রথমে গোল দিয়েও শেষ মুহৃর্তে রক্ষণভাগের ভুলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়ে। ড্র হয়েছিল বলে, কাল ঢাকায় জয়ের আশা করছেন কোচ ক্রুইফ। কিন্তু দুশানবেতে যে পারফরম্যান্স প্রদর্শন করেছে তাতে ঢাকায় জয় নয়, ড্র করাটাই অবিশ্বাস্য মনে হচ্ছে। যাক তাকিজদের কাছে হারের পরও এশিয়ান কাপে বাছাইপর্বে খেলার স্বপ্ন জেগে থাকবে। পরবর্তীতে ভুটানের বিপক্ষে প্লে-অফ ম্যাচ খেলতে হবে। দুর্বল প্রতিপক্ষ বলে ভুটানের বিপক্ষে জয়ের আশা করা যায়। তবে মামুনুলরা যে অপরিকল্পিত খেলা খেলছেন তাতে ভুটানকে হারানো যাবে কিনা এ নিয়ে সংশয়ে আছেন ফুটবলপ্রেমীরা। যদিও গত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ভুটানের বিপক্ষে সান্ত্বনার জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু এবার কি করবে বলা মুশকিল।

দুশানবেতে ম্যাচ হারের পর ক্রুইফ তার শিষ্যদের ওপর ভীষণ বিরক্ত। তিনি বলেছেন, যোগ্য দল হিসেবেই তাজিকিস্তান জয় পেয়েছে। কিন্তু ৫ গোল আমি মেনে নিতে পারছি না।  ক্রুইফ মনে করেন, ঢাকায় ভালো খেলতে পারলে তাজিকিস্তানকে হারানো সম্ভব।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow