Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১৮ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৭ জুন, ২০১৬ ২৩:৩৯
ভিডিও কনফারেন্সে শচীন
ক্রীড়া ডেস্ক
ভিডিও কনফারেন্সে শচীন

ভারতীয় ক্রিকেট দলের কোচ নির্বাচনের বিষয়টি এখন বেশ আলোচিত। বিশ্বের ৫৭ জন সাবেক তারকা ক্রিকেটার আবেদন করেছিলেন।

সেখান থেকে কমিয়ে ২১ জনকে রাখা হয়েছে। তারপরও কোচ নির্বাচনের প্রক্রিয়াটি কীভাবে সম্পন্ন করা হবে তা নিয়ে আলোচনা চলছেই। তবে মাস্টারব্লাস্টার ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার জানিয়েছেন, দেশের বাইরে থাকলেও ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভারতীয় ক্রিকেট দলের কোচ নির্বাচনে সহায়তা করবেন। কোচ নির্বাচনের লক্ষ্যে আগামী ২২ জুন এক বৈঠকে মিলিত হবেন দুই সাবেক খেলোয়াড় সৌরভ গাঙ্গুলি ও ভিভিএস লক্ষ্মণ এবং সিনিয়র অফিসার সঞ্জয় জাগদালে। এই বৈঠকে থাকার কথা ছিল শচীন টেন্ডুলকারের। তারপরও ভিডিও কনফারেন্সে কোচ নির্বাচনে নিজের মতামত তুলে ধরবেন ব্যাটিং জিনিয়াস। ৫৭ জন থেকে ২১ জন, এখন ২১ জন থেকে বেছে নেওয়া হবে একজনকে। কিন্তু কে হবেন নতুন কোচ। আর এটা নির্বাচন করবেন ভারতের তিন সাবেক খেলোয়াড় টেন্ডুলকার, গাঙ্গুলি ও লক্ষ্মণ। সঙ্গে থাকবেন জাগদালেও। ব্যক্তিগত কাজে বর্তমানে লন্ডনে আছেন টেন্ডুলকার। আগামী জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে টেস্ট সিরিজের আগেই কোচ নির্বাচন করবে ভারত। একটি সূত্র জানিয়েছে, কোচ হওয়ার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছেন সাবেক টিম ডিরেক্টর রবি শাস্ত্রী ও বর্তমান প্রধান নির্বাচক সদ্বীপ পাতিল। তবে রবি শাস্ত্রী টিম ডিরেক্টর থাকায় দলের কতটা উপকারে এসেছে এ বিষয়টিও আলোচনায় উঠবে। কিন্তু একটা বিষয় অনেকটাই নিশ্চিত যে, ভারতীয় কেউ-ই হচ্ছেন এবার ভারতের কোচ। কেননা সৌরভ গাঙ্গুলি খুব ভালো করেই বোঝেন, বিদেশি কোচ দলের জন্য কখনো কখনো ক্ষতিকর হয়ে ওঠেন। এর ভুক্তযোগী গাঙ্গুলি নিজেই। অস্ট্রেলিয়ার গ্রেগ চ্যাপেল ভারতীয় দলের কোচ হওয়ার পর দলের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি করে ফেলেছিল। অধিনায়কত্ব হারিয়েছেন গাঙ্গুলি। সিনিয়র-জুনিয়রদের মধ্যে দুটো দল তৈরি করে ফেলেছিল। যে কারণে ভালো দল নিয়ে সাফল্য পায়নি ভারত। টেন্ডুলকারও বিদেশি কোচের অধীনে অনেক ভুগেছেন। তা ছাড়া ভাষাগত সমস্যার কারণে তরুণ ক্রিকেটারদের সঙ্গে কোচের সমস্যা তো হয়ই। সেক্ষেত্রে স্থানীয় কেউ কোচ হলে দলের প্রতি তার দায়িত্ববোধ থাকে অনেক বেশি। সেদিক চিন্তা করলে রবি শাস্ত্রীই হতে পারেন ভারতের পরবর্তী কোচ। তবে সদ্বীপ পাতিলকেও পিছিয়ে রাখার উপায় নেই।

up-arrow