Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ১৯ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ১৮ জুন, ২০১৬ ২২:৫২
আবাহনীর জয় মোহামেডানের হার
ক্রীড়া প্রতিবেদক
আবাহনীর জয় মোহামেডানের হার

ওয়ালটন প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে শিরোপার পথে এগিয়ে যাচ্ছে ঢাকা আবাহনী। সুপার লিগে তারা ৬ উইকেটের বড় ব্যবধানে পরাজিত করেছে প্রথম পর্বে শীর্ষে থাকা আরেক ঐতিহ্যবাহী দল ভিক্টোরিয়াকে। মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে গতকাল অনুষ্ঠিত এই ম্যাচে টসে জিতে আবাহনী ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায় ভিক্টোরিয়াকে। সাকলাইন সজিব, সাকিব ও তাসকিনের মারাত্মক বোলিংয়ে শুরু থেকে বিপর্যয়ে পড়ে যায় ভিক্টোরিয়া। ৩৬.২ ওভারে মাত্র ১৩৯ রানে অল আউট হয়ে যায় তারা। মুমিনুল ২৩, শুভ ২১, মজিদ ১৬, ধীমান ঘোষ উল্লেখ করার মতো ১৫ রান সংগ্রহ করেন। শুভ অবশ্য তাসকিনের বোলিংয়ে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন। সজিব ১৩, সাকিব ২৮, তাসকিন ৩০ রানে ৩টি করে উইকেট পান।

তারকা ভরা দল আবাহনীর জন্য ১৪০ রান আহামরি কোনো ব্যাপার নয়। উদ্বোধনী জুটিতে ৫১ রান সংগ্রহ করেন দুই ব্যাটসম্যান তামিম ও লিটন দাস। শেষ পর্যন্ত ২৯.২ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে আবাহনী জয়ের লক্ষ্য পৌঁছে যায়। তামিম সর্বোচ্চ ৩৩, দীনেশ কার্তিক অপরাজিত ৩২, শান্ত ২২, লিটন ১৮, মোসাদ্দেক ১৮ রান করেন। পিসি ডি সিলভা ৩১, এনামুল হক ৩২ রানে ভিক্টোরিয়ার পক্ষে ২টি করে উইকেট ভাগাভাগি করে নেন। এই জয়ে আবাহনী ১৩ ম্যাচে ১৮ অন্যদিকে ১৪ ম্যাচে ভিক্টোরিয়ার সংগ্রহ ১৭। আবাহনী এখন পয়েন্ট টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।

আবাহনী সহজ জয়ে মাঠ ছাড়লেও আরেক জায়ান্ট ঢাকা মোহামেডান হেরেই চলেছে। ফতুল্লা খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে তারা ৭ উইকেটে প্রাইম দোলেশ্বরের কাছে হেরে যায়। টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে মোহামেডান বড় চ্যালেঞ্জ দিতে পারেনি। ৪৯ ওভারে ২১৩ রানে অলআউট হয়ে যায়। সৈকত আলী সর্বোচ্চ ৫১, আরিফুল ৪৮, অধিনায়ক মুশফিক ২০, নাইম ইসলাম ১৮ রান করেন। রেজাউল ২৩, ফেরদৌস ৩২, নাসির ৩৮, সাঞ্জামুল ইসলাম ৫০ রানে ২টি করে উইকেট পান। আল আমিন পান ৪০ রানে ১টি। ২১৪ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে প্রাইম দোলেশ্বর সহজভাবে জিতে যায়। হাতে ১২ বল রেখে ৩ উইকেট হারিয়ে প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয় তারা। রকিবুল হোসেন সর্বোচ্চ ৮৬, শচিন বেবি ৫২, রনি তালুকদার উল্লেখ করার মতো ২৮ রান সংগ্রহ করেন। ফয়সাল, শহিদুল ও হাবিবুর ১টি করে উইকেট পান। ১৩ ম্যাচে দোলেশ্বর ১৬, এক ম্যাচ বেশি খেলে মোহামেডানের সংগ্রহ ১৪।

 




up-arrow