Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ২৪ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৪ জুন, ২০১৬ ০১:২৩
আর্জেন্টিনার সামনে সেই চিলি
চিলি ২ : ০ কলম্বিয়া
ক্রীড়া প্রতিবেদক
আর্জেন্টিনার সামনে সেই চিলি

এক বছরের ব্যবধানে ফের মুখোমুখি হচ্ছেন লিওনেল মেসি ও অ্যালেক্সিস স্যাঞ্চেজ। মুখোমুখি হচ্ছে আর্জেন্টিনা-চিলি। বিশ্বের সবচেয়ে প্রাচীণতম টুর্ণামেন্ট কোপা আমেরিকার শতবর্ষীয় আসরের ফাইনালে উঠেছে দুই দল। চিলির টার্গেট শিরোপা ধরে রাখা। বিপরীতে মেসির আর্জেন্টিনার লক্ষ্য প্রতিশোধের পাশাপাশি ২৩ বছরের শিরোপা বন্ধ্যাত্ব ঘুঁচানো। আর্জেন্টিনা ফাইনালে জায়গা নেয় স্বাগতিক মার্কিণ যুক্তরাস্ট্রকে বিধ্বস্ত করে। গতকাল ভোরে চিলি ২-০ গোলে কলম্বিয়াকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠলো ষষ্ঠবারের মতো। রবিবার দুই দল নিউ জার্সির ইষ্ট রাদারফোর্ডে মুখোমুখি হবে চ্যাম্পিয়ণ হতে। কোপার দ্বিতীয় সেমিফাইনালটি ঝড়ো আঘাতে বন্ধ ছিল প্রায় দুই ঘন্টা। প্রথমার্ধের খেলা নির্বিঘ্নেই শেষ হয়। শিকাগোয় দ্বিতীয়ার্ধের খেলা মাঠে গড়ানোর আগে শুরু হয় তুমুল ঝড়ো হাওয়া ও প্রবল বৃষ্টি। সঙ্গে প্রচণ্ড বজ পাত। যার ফলে খেলা বন্ধ থাকে প্রায় দু’ঘণ্টা। এরপর খেলা যখণ শুরু হয়, তখন পানি জমে যায় মাঠে। এতে দ্বিতীয়ার্ধের খেলা হারিয়ে ফেলে গতি। গত আসরের ফাইনালে চিলি টাইব্রেকারে ৪-১ গোলে হারিয়েছিল আর্জেন্টিনাকে। ২৭ জুন নিউজার্সিতে ফের মুখোমুখি হচ্ছে দুই দল। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মেসির আর্জেন্টিনা বরাবরই ফেবারিট। চিলি সেই ধারায় ছিল না। কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনালে ৭-০ গোলে আকাশসমান ব্যবধানে জিতেই আত্মবিশ্বাসে টগবগ করতে থাকে চিলি। বিপরীতে বিশ্বকাপ ফুটবলের গত আসরের ‘গোল্ডেন বুট’ জয়ী জেমস রদ্রিগেজের কলম্বিয়া পিছিয়ে ছিল না। তবে চিলির বিপক্ষে খেলতে নেমে তালগোল হারিয়ে ফেলেন রদ্রিগেজরা। শিকাগোর সোলজার ফিল্ড স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরুর ১১ মিনিটে দুই গোল করে ফাইনাল নিশ্চিত করে নেন স্যাঞ্জেজরা। ৭ মিনিটে ডান দিক থেকে হোসে পেদ্রো ফুয়েনসালিদা ক্রস করেন অ্যালেক্সিস সাঞ্জেজকে। পাহারায় থাকা হুয়ান কুয়াদরাদো বল ক্লিয়ার করতে গেলে তা চয়ে যায় চিলির মিডফিল্ডার চার্লস আরানগিসের পায়ে। আরানগিস সময়ক্ষেপণ না করে ডান পায়ের জোরালো শটে কলম্বিয়ার গোলরক্ষক  ডেভিড অ্যাসপ্রিনাকে পরাস্থ করে জালে পাঠান (১-০)। চার মিনিট পরই ব্যবধান দ্বিগুণ করে চিলি। বাঁ প্রান্ত দিয়ে প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগের দুই ফুটবলারকে গতিতে হারিয়ে স্যাঞ্চেজ জোরালো শট নেন। কিন্তু বল বার পোষ্ঠে লেগে ফিরে আসে এবং ফিরতি বলে আলতো টোকায় জয় নিশ্চিত করেন ফুয়েনসালিদার (২-০)।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow