Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : সোমবার, ২৭ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৬ জুন, ২০১৬ ২২:৩৫
স্পেন-ইতালি দুই জায়ান্টের লড়াই
ক্রীড়া ডেস্ক
স্পেন-ইতালি দুই জায়ান্টের লড়াই

ফ্রান্সের সেন্ট ডেনিসে উয়েফা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল হবে ১০ জুলাই। তবে এর আগেই একটা ‘ফাইনাল’ হয়ে যাচ্ছে আজ এই সেন্ট ডেনিসেই। চার বছর আগে কিয়েভের অলিম্পিক স্টেডিয়ামে ইউরো ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল স্পেন-ইতালি। ফুটবলভক্তরা দেখেছিল ইউরো ফাইনালের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জয় (৪-০)। স্পেনের দুরন্ত সেই জয় রূপকথা হয়েই ফুটবলের উঠুনে বেঁচে থাকবে। আজ স্পেন-ইতালির দ্বৈরথ তাই ফাইনালের আগেই একটা ‘ফাইনাল’ আবহ এনে দিয়েছে। শেষ ষোলর লড়াইয়ে মুখোমুখি হচ্ছে দুই দল সেন্ট ডেনিসে। পরিসংখ্যানে দুই দলের অবস্থান সমান্তরালে। ৩৪ বার দেখা হয়েছে দুই দলের। এর মধ্যে স্পেন ও ইতালি দুই দলই ১০টি করে ম্যাচ জিতেছে। বাকি ১৪টা ড্র হয়েছে। অতীত পরিসংখ্যানে সমান্তরালে থাকলেও বর্তমানে অনেকটাই এগিয়ে থাকছে স্পেন। কেবল ইউরো কাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বলেই নয়, নতুন প্রজন্মের স্পেন দুর্দান্ত ফুটবল উপহার দিয়ে চলেছে নিয়মিতই। গ্রুপ পর্বে আলভারো মোরাতা আর নলিতোরা দারুণ খেলেছেন। অন্যদিকে বড় টুর্নামেন্টের দল হিসেবে পরিচিত ইতালিয়ানরাও দুর্দান্ত ফুটবল খেলেছে। বেলজিয়ামকে ২-০ এবং সুইডেনকে ১-০ গোলে হারিয়েছে তারা। ইতালির কাছ থেকে টুর্নামেন্ট শুরুর আগে অনেকেই এমন ফলাফল আশা করেনি। সেই ইতালি ইউরো কাপ শুরু হতেই কেমন বদলে গেল। পিল্লে আর গিয়েচ্চারিনিরা তারকা হয়ে উঠলেন। ইতালি-স্পেন ম্যাচ এবার ভিন্ন আবহেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ফুটবলের দীর্ঘ ইতিহাসে স্পেন-ইতালি লড়াই রক্তক্ষয়ী হিসেবেই পরিচিত। বর্তমান বার্সেলোনা কোচ লুইস এনরিকের নাক থেকে রক্ত ঝরেছিল ১৯৯৪ বিশ্বকাপে। সেবার স্পেনকে বিদায় করেছিলেন রবার্তো বাজ্জিওরা। এমনই আরও কত স্মরণীয় লড়াই রয়েছে দুই দলের। ১৯৩৪ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালেও মুখোমুখি হয়েছিল স্পেন-ইতালি। সেবারও জয় হয়েছিল ইতালিরই। ইউরো কাপের শেষ ষোল থেকেই এবার এক ফেবারিটকে বিদায় নিতে হবে। এবার কে বিদায় নিতে যাচ্ছে! বর্তমান চ্যাম্পিয়ন স্পেন! নাকি ইতালি! স্পেনকে বিদায় করতে পারলে গতবারের ফাইনালে পরাজয়ের একটা প্রতিশোধ নেওয়া হবে ইতালিয়ানদের।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow