Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৯ জুন, ২০১৬ ২৩:৩২
জ্বলে ওঠেনি তারকারা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
জ্বলে ওঠেনি তারকারা
তারকা ফুটবলার নেই। তবু আরামবাগ টিম বিজেএমসির খেলা দর্শকদের নজর কেড়েছে —ফাইল ফটো

মান নেই। তারপরও ফুটবলারদের পারিশ্রমিক বেড়েই চলেছে।

আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে ব্যর্থতার বৃত্তে বন্দি থাকার পরও লোকাল ফুটবলে আকাশছোঁয়া পারিশ্রমিক বলা যায়। এমন সংকটাপন্ন অবস্থায় ফুটবলের পারিশ্রমিক ৬০ লাখ টাকাও ছাড়িয়ে গেছে। ৫০, ৪৫, ৪০, ৩০ বা ২০ লাখ এ পরিমাণের অর্থ অনেকে পেয়েছেন। ক্লাবগুলোর চিন্তা ছিল বিগ বাজেটে বড় বড় খেলোয়াড়দের সংগ্রহ করলেই সাফল্য পাওয়া যাবে। চলতি মৌসুমে স্বাধীনতা কাপ ও ফেডারেশন কাপ শেষ হয়েছে। প্রথমটিতে চট্টগ্রাম আবাহনী ও পরেরটিতে ঢাকা আবাহনী চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এবারে তারকাভরা দল গড়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী। তবে মৌসুমে প্রথম ট্রফি জেতা দলে অনেক তারকা ফুটবলার ছিলেন না। শেখ জামালের মামলার কারণে নির্ভরযোগ্য ফুটবলাররা ছিল মাঠের বাইরে। তারপরও স্বাধীনতা কাপ ট্রফি ঘরে তুলেছে।

ফেডারেশন কাপে তারকারা মাঠে নামলেও চট্টগ্রাম আবাহনী ছিল বড্ড ম্লান। গ্রুপ পর্বের লড়াইয়ে দুর্বল মুক্তিযোদ্ধার কাছে হেরে তাদের বিদায় নিতে হয়। লাখ লাখ টাকা যাদের পেছনে খরচ করা হয়েছে তারা ছিলেন ফ্লপ। শুধু চট্টগ্রাম আবাহনী কেন, আরও কয়েকটি দল সুবিধাই করতে পারেনি। লোকালদের পেছনে যেমন অঢেল অর্থ খরচ করেছে তেমনিভাবে চড়াদামে বিদেশিও উড়িয়ে এনেছে। লাভ হয়নি, ট্রফি অধরা থেকে গেছে। অথচ কি চোখ ধাঁধানো নৈপুণ্য প্রদর্শন করেছে আরামবাগ। অচেনা-অজানা খেলোয়াড়দের নিয়ে গড়া ফেডারেশন কাপে তারা চোখ জুড়ানো পারফরম্যান্স প্রদর্শন করেছে। ফাইনালে ঢাকা আবাহনীর কাছে হেরে গেছে। কিন্তু আরামবাগ প্রশংসা পেয়েছে ক্রীড়ামোদীদের। আর আবাহনী ছয় বছর পর ট্রফি উদ্ধার করলেও এবার তাদের দলেও তেমনমানের তারকা ফুটবলার ছিল না। যারা তারকা নিয়ে দল গড়েছে তারা ব্যর্থ। বিগ বাজেটে দল গড়েও লাভ হলো না। দেখা যাক পেশাদার লিগেও তারকারা জ্বলে উঠতে পারে কিনা?

এই পাতার আরো খবর
up-arrow