Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৫ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৪ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৩৪
পতাকা থাকবে সিদ্দিকুরের হাতে
ক্রীড়া প্রতিবেদক

আর মাত্র কদিন পরই ব্রাজিলের রিওতে দুনিয়া কাঁপানো অলিম্পিক গেমসের পর্দা উঠবে। বাংলাদেশ থেকে গলফার সিদ্দিকুর রহমান, শুটার আবদুল্লাহ হেল বাকি, সুইমার মাহফিজুর রহমান সাগর ও আরচার শ্যামলী রায় এবারে গেমসে অংশ নেবেন। অন্যরা ওয়াইল্ড কার্ডের মাধ্যমে দুনিয়া কাঁপানো গেমসে সুযোগ পেলেও গলফার সিদ্দিকুর সরাসরি ডাক পেয়েছেন। সাফ, এশিয়ান বা কমনওয়েলথ বাংলাদেশ পদক জয় করলেও শুধু অলিম্পিকে পায়নি। বিশ্বকাপ ফুটবল চূড়ান্ত পর্বে খেলাটা যেমন স্বপ্নের মতো। তেমনি অলিম্পিকে পদক জেতাটাও। এবার সিদ্দিকুর থাকাতে কেউ কেউ পদক জেতার স্বপ্ন দেখছেন। রিও অলিম্পিকে খ্যাতনামা গলফাররা অংশ নিচ্ছেন না। তাই দেশবাসীর চোখ থাকবে সিদ্দিকুরের দিকে। বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন চূড়ান্ত ঘোষণা না দিলেও রিওতে মার্চ পাস্টে বাংলাদেশের পতাকা বহন করবেন সিদ্দিকুরই। বিওএর এক কর্মকর্তা গতকাল তা জানিয়েছেন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭২ সালে মিউনিখ অলিম্পিকে বাংলাদেশ থেকে এক সদস্যর প্রতিনিধি পাঠানো হয়। ১৯৭৬ মন্টিল অলিম্পিকেও একই অবস্থা। ১৯৮০ সালে বেশ ক’টি দেশ মস্কো অলিম্পিক বয়কট করলে বাংলাদেশ থেকে কোনো প্রতিনিধি পাঠানো হয়নি। ১৯৮৪ সালে লস অ্যাঞ্জেলস অলিম্পিকে বাংলাদেশ থেকে প্রথম ক্রীড়াবিদ পাঠানো হয়। অ্যাথলেট সাইদুর রহমান ডন গেমসে বাংলাদেশে পতাকা বহন করেন। ১৯৮৮ সালে সিউল অলিম্পিকে পতাকা বহন করেন অ্যাথলেট শাহ আলম। ১৯৯২ বার্সালোনায় মহিলা শুটার কাজী শাহানা পারভীন পতাকা বহন করেন। ১৯৯৬ সালে সাইফুল আলম রিকিং। ২০০০ সিডনি গেমসে সাবরিনা সুলতানা, ২০০৪ আসিফ হোসেন, ২০০৮ রুবেল রানা ও ২০১২ সালে অলিম্পিক গেমসে পতাকা বহন করেন সুইমার মাহফিজুর রহমান সাগর।

up-arrow