Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ জুলাই, ২০১৭

প্রকাশ : রবিবার, ২৪ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৩ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৩০
মাঠে গড়াচ্ছে পেশাদার লিগ
মুহাম্মদ সেলিম, চট্টগ্রাম
মাঠে গড়াচ্ছে পেশাদার লিগ
পেশাদার ফুটবল লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শেখ রাসেল আজ লড়বে উত্তর বারিধারার বিপক্ষে। মাঠে নামার আগে গতকাল গা গরম করে নিচ্ছেন খেলোয়াড়রা —বাংলাদেশ প্রতিদিন

নতুনরূপে নতুন আঙ্গিকে মাঠে গড়াচ্ছে পেশাদার ফুটবল লিগ। কনসার্টের মাধ্যমে আগে বর্ণাঢ্য উদ্বোধন হলেও খেলা মাঠে গড়াচ্ছে আজ থেকে। বিকাল সাড়ে ৪টায় উদ্বোধনী ম্যাচে লড়বে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল ধানমন্ডি ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় রানার্স আপ শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লড়বে উত্তর বারিধারার বিপক্ষে। ২০০৭-০৮ মৌসুমে বাংলাদেশে পেশাদার লিগের যাত্রা শুরু হয়। শুরু থেকে আটটি ম্যাচ ঢাকাতেই হয়েছিল। এবার তার ব্যতিক্রম ঘটছে। বন্দর নগরী চট্টগ্রাম এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে এবার লিগের পর্দা উঠছে। বাংলাদেশে এই প্রথম ঘরোয়া ফুটবলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আসর ঢাকার বাইরে হচ্ছে। নবম আসরে লিগ পা দিলেও পেশাদার লিগে প্রকৃতপক্ষে পেশাদারিত্ব দেখা যায়নি। বড় ধরনের শর্ত না মানা ছাড়াও অনেক ক্লাব খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিকও ঠিকমতো মেটাতে পারেনি। ম্যাচ পরিচালনা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। সত্যি বলতে কী দেশের সবচেয়ে বড় লিগ হলেও আকর্ষণ বলতে যা বোঝায় ৮ বছরে তা দেখা যায়নি।

আগে যাই ঘটুক না কেন, সব অতীত। এবার নতুনরূপে পেশাদার লিগের দেখা মিলতে পারে। বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সাইফ পাওয়ার টেক ৫ বছরের জন্য লিগের স্বত্ব কিনে নিয়েছে। এ জন্য তারা প্রথম মৌসুমে ৪ কোটি টাকা প্রদান করেছে বাফুফেকে। আয়োজক বাফুফে কিন্তু লিগের সৌন্দর্য বাড়ানোর দায়িত্ব নিয়েছে সাইফ পাওয়ার টেক। প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও লিগের প্রধান সমন্বয়কারী তরফদার রুহুল আমিন বলেন, বিরাট চ্যালেঞ্জ নিয়েছি। চার ভেন্যুতে লিগ হবে। আশা করি দর্শকরা এবার নজর কাড়া আসর দেখবে। পেশাদার লিগের মাধ্যমে আমরা ফুটবলকে জাগিয়ে তুলতে চাই। সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা হওয়ার পরও ফুটবল নিস্তেজ হয়ে গেছে এটা সত্যি। আমরা চাই অতীতে দর্শকরা যেভাবে মাতোয়ারা থাকত সেভাবেই উন্মাদনা আবার সৃষ্টি হোক। শিডিউল পরিবর্তন না হলে ৩ আগস্ট চট্টগ্রামপর্ব শেষ হবে। প্রতিটি দলের তিনটি করে খেলা হবে। দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে লিগে নিরাপত্তা ব্যবস্থাও জোরদার করা হয়েছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সব রকম ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। মাঠ, প্রাকটিসভেন্যু, হোটেল ও যাতায়াতে খেলোয়াড়দের পূর্ণ নিরাপত্তা দেওয়া হবে। তরফদার আশা প্রকাশ করছেন নিরাপত্তায় কোনো ব্যাঘাত ঘটবে না।

গতবারের মতো পেশাদার লিগে ১২টি দল অংশ নিচ্ছে। শেখ জামাল ধানমন্ডি, শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র, ঢাকা মোহামেডান, ঢাকা আবাহনী, ব্রাদার্স ইউনিয়ন, মুক্তিযোদ্ধা ক্রীড়াচক্র, ফেনী সকার, টিম বিজেএমসি, রহমতগঞ্জ, চট্টগ্রাম আবাহনী, আরামবাগ ক্রীড়াসংঘ ও উত্তর বারিধারা দেশসেরা লিগ  খেলবে। গত দুবারের চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল। এবারে হ্যাটট্রিক শিরোপা জেতার স্বপ্ন রয়েছে। তবে দল থেকে বেশ ক’জন তারকা ফুটবলার বের হয়ে যাওয়ায় তাদের শিরোপা ধরে রাখাটা মুশকিল হবে মনে হচ্ছে। প্রথম দিনে দলে নির্দিষ্ট কোনো কোচ থাকছে না। সাবেক দুই ফুটবলার আশরাফ বা বাদল কোচের দায়িত্ব পালন করবে। ৩০ জুলাই জোসেফ আকুসি কোচের দায়িত্ব পালন করতে ঢাকায় আসছেন। আজকের ম্যাচে নির্ভরযোগ্য বিদেশি তারকা ওয়েডসনও থাকছেন না। ক্লাব বলছে খুব শিগগিরই ঢাকা আসবেন। বাস্তবে আসবেন কিনা তা নিয়ে সংশয় রয়েছে। শক্তির বিচার করলে লিগ জেতার সম্ভাবনা রয়েছে শেখ রাসেল, চট্টগ্রাম আবাহনী ও ঢাকা আবাহনীর। ইতিমধ্যে চট্টগ্রাম আবাহনী স্বাধীনতা কাপ ও ঢাকা আবাহনী ফেডারেশন কাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। আটবারের মধ্যে ঢাকা আবাহনী ৪, শেখ জামাল ৩ ও শেখ রাসেল ১ বার দেশসেরা ট্রফি ঘরে তোলে। ঐতিহ্যবাহী ঢাকা মোহামেডান তিনবার রানার্সআপ হলেও একবারও শিরোপা জিততে পারেনি। জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগম পেশাদার লিগের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর করা হয়েছে। নবম পেশাদার লিগের পর্দা উঠছে আজ। নতুনরূপে এই লিগ জমে উঠুক এই প্রত্যাশা সবারই।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow