Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৪৯
হকির উন্নয়নে মেগা পরিকল্পনা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
হকির উন্নয়নে মেগা পরিকল্পনা
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন হকি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবদুস সাদেক (মাঝে) —বাংলাদেশ প্রতিদিন

অবশেষে জাতীয় হকি দলের কোচ নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তিন মাসের জন্য জার্মান কোচ অলিভার কার্টজকে নিয়োগ দিয়েছে হকি ফেডারেশন। গতকাল জাতীয় হকি দলের বিদেশি কোচ প্যানেল নিয়োগ সংক্রান্ত এক অনুষ্ঠানে বিষয়টি জানান হয়েছে। এএইচএফ কাপের জন্য তিন মাসের চুক্তি করা হয়েছে কার্টজের সঙ্গে। তার সহকারী হিসেবে থাকবেন আরও চার জার্মান। এর মধ্যে সাবেক জাতীয় কোচ গেরহার্ড পিটারকে করা হয়েছে উপদেষ্টা কোচ। লুজান বিসমান টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার, অ্যাথিম সেনট্রস ভিডিও অ্যানালিস্ট ও জুস্ট ক্রুইজেন ফিজিও। ক্যাম্পের সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন আরিফুল হক প্রিন্স ও স্থানীয় হেড কোচের দায়িত্ব পালন করবেন মাহবুব হারুন। দেশের হকিকে পেশাদারিত্ব আনতে উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়নের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রতিষ্ঠিত করার উদ্যোগ নিয়েছে ফেডারেশন। বিদেশি কোচ প্যানেল নিয়োগ সংক্রান্ত অনুষ্ঠানে তা তুলে ধরেন ফেডারেশনের কর্মকর্তারা।

হকি ফেডারেশন প্রাথমিকভাবে সাতটি লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। লক্ষ্যগুলো টেকসই কর্মকৌশল নির্ধারণ, সফল ও শক্তিশালী দল গঠন, ফেডারেশনের আয় বৃদ্ধি, কর্মকাণ্ডে পেশাদারিত্বের সূচনা, তৃণমূল পর্যায় থেকে সর্বোচ্চ পর্যায়ে অংশগ্রহণে সুযোগ বৃদ্ধি, হকির ‘ব্র্যান্ড ভ্যালু’ বৃদ্ধি ও কর্মকাণ্ড বিকেন্দ্রীয়করণ। আপাতত ফেডারেশন একটি স্বল্পকালীন পরিকল্পনা নিয়েছে। যার অধীনে জাতীয় হকি দল আগামী নভেম্বরে হংকংয়ে অনুষ্ঠিতব্য এএইচএফ কাপ হকিতে চ্যাম্পিয়নের লক্ষ্যে জার্মানিতে এক মাসের ক্যাম্প করবে।

জাতীয় দলের জন্য নির্বাচিত ১৮/২০ জন খেলোয়াড় প্রাথমিকভাবে চলে যাবেন জার্মানিতে। সেখানে তারা খেলবেন বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে। কোচিং প্যানেল এ সময় খেলোয়াড়দের তদারকি করবেন। ইতিমধ্যে কৃষ্ণ কুমার, ইমরান হাসান পিন্টু, তাপস বর্মন ও আশরাফ চলে গেছেন জার্মানিতে। এক মাস খেলার পর আগামী মাসে সব খেলোয়াড়কে একত্রিত করে এক মাসের ক্যাম্প চালু হবে। এ সময় শক্তিশালী ক্লাবগুলোর সঙ্গে জাতীয় দল খেলবে ১২টি প্রস্তুতি ম্যাচ। এরপর দেশে ফিরে ঢাকায় ২০/২৫ দিন ক্যাম্প করে দল যাবে হংকংয়ে।

এরমধ্যে জার্মান চার কোচ প্রণয়ন করবে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা। যার ভিত্তিতে সাজান হবে বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ হকি কাঠামো। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক আবদুস সাদেক, সহ-সভাপতি খাজা রহমত উল্লাহ, শফিউল্লাহ আল মুনীর। যুগ্ম সম্পাদক আনভীর আদিল খান। ন্যাশনাল টিম কমিটির চেয়ারম্যান সহ-সভাপতি শফিউল্লাহ আল মুনীরই মূলত উপস্থাপন করেন পরিকল্পনাটি।

up-arrow