Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • নিকোলাস মাদুরো ফের ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন
  • চাটাইয়ে মুড়িয়ে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সম্মান!
  • কেরানীগঞ্জে বাচ্চু হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি, ৭ জনের যাবজ্জীবন
  • ৩ মামলায় জামিন চেয়ে হাইকোর্টে খালেদার আবেদন
  • হালদা নদীর পাড়ের অবৈধ স্থাপনা ভাঙার নির্দেশ
  • আফগানিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা
  • কাদেরের বক্তব্যে একতরফা নির্বাচনের ইঙ্গিত: রিজভী
  • কলারোয়া সীমান্তে স্বামী-স্ত্রীসহ ৩ বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ
  • বিএনপি নির্বাচনে না এলেও গণতন্ত্র অব্যাহত থাকবে: কাদের
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:২৭
কোনো ‘কালো তালিকা’ নয়
ক্রীড়া ডেস্ক
কোনো ‘কালো তালিকা’ নয়

বাংলাদেশে আসার ব্যাপারে বিশ্বস্ত নিরাপত্তা বিশ্লেষক রেগ ডিকাসনের কাছ থেকে সবুজ সংকেত পাওয়ার পর ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) ক্রিকেট পরিচালক অ্যান্ড্রু স্ট্রস বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশ সফরে না গেলে ভারত সফরেও সেই ক্রিকেটারের জায়গা নিশ্চিত নয়। কেন না নতুনরা যদি বাংলাদেশে ভালো করে তাহলে ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজে তাদের অগ্রাধিকার থাকবে।’ যে ক্রিকেটাররা বাংলাদেশ সফরে আসবেন না তাদেরকে ‘কালো তালিকা’য় রাখার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন স্ট্রস। তা ছাড়া বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সিরিজের জন্য ঘোষিত দলটিই ভারতে খেলবে, এমন কথাও বলেছেন ইংলিশ নির্বাচকরা। তবে ক্রিকেট পরিচালক স্ট্রস এবার নিজের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন। কোনো ক্রিকেটারকেই রাখা হচ্ছে না ‘কালো তালিকা’য়।

বাংলাদেশ সফরে পূর্ণ শক্তির ইংল্যান্ড দলই আসছে। দুই সিনিয়র ক্রিকেটার ইয়ন মরগান ও অ্যালেক্স হেলস বাংলাদেশ সফরে না আসলেও তাদেরকে ভারত সিরিজের অবশ্যই রাখবেন বলে জানান তিনি। বিবিসি রেডিওকে স্ট্রস বলেন, ‘কোনো কালো তালিকা হচ্ছে না। তারা (মরগান ও হেলস) অবশ্যই ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজে বিবেচিত হবেন।’

গত টি-২০ বিশ্বকাপে মরগানের নেতৃত্বেই ভারতের মাটিতে ফাইনালে উঠেছিল ইংল্যান্ড। হেলসও সম্প্রতি দারুণ পারফর্ম করছেন। তাই মরগান ও হেলসের পারফরম্যান্সের প্রশংসা করে স্ট্রস বলেন, ‘গত এক বছরে ইংল্যান্ডের হয়ে তারা অসাধারণ ক্রিকেট খেলেছেন। বিশেষ করে, মরগানের নেতৃত্ব ছিল দারুণ।’

তবে কালো তালিকা না হলেও মরগান ও হেলসকে ছাড়াই যদি বাংলাদেশে ভালো করে ইংল্যান্ড তবে দুই তারকার দলে ফিরে আসা কঠিনই হয়ে যাবে। কেন না ইসিবির কাছে ‘তারকা’ তকমার চেয়ে দলের পারফরম্যান্সই মুখ্য। তা না হলে ইয়ান বেল ও ক্রিস জর্দানের মতো তারকা ক্রিকেটার বাংলাদেশে আসার ব্যাপার আগ্রহ প্রকাশ করার পরও দলে সুযোগ পাননি। কেভিন পিটারসেনের মতো তারকা ক্রিকেটারকেও দল থেকে ছেঁটে ফেলতে ভাবেনি বোর্ড। তাই স্ট্রস কালো তালিকা না করার কথা বললেও বাংলাদেশে না আসার সিদ্ধান্তে ইসিবি যে মরগান ও হেলসের ওপর কিছু রুষ্ট হয়েছে তা তো বলার অপেক্ষা রাখে না। তাই ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজে মরগান ও হেলসের দলে থাকা না থাকার বিষয়টি অনেকটাই নির্ভর করছে, বাংলাদেশে আসা তরুণ ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্সের ওপর।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow