Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৩৬
রুবেলের জায়গায় মোশাররফ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
রুবেলের জায়গায় মোশাররফ
সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ আগামীকাল। আফগানিস্তানকে হারাতে গতকাল কঠোর অনুশীলনে ব্যস্ত টাইগাররা —বাংলাদেশ প্রতিদিন

নিয়মিত পারফর্ম করার পরও আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম দুই ম্যাচের ওয়ানডে দলে জায়গা হয়নি পেসার আল আমিন হোসেনের। এবার তৃতীয় ওয়ানডের জন্য ঘোষিত দল থেকে বাদ পড়লেন আরেক পেসার রুবেল হোসেন। রুবেলের জায়গায় দলে নেওয়া হয়েছে স্পিনার মোশাররফ হোসেনকে। দলে এই একটাই পরিবর্তন। দীর্ঘ ৮ বছর পর জাতীয় দলে সুযোগ পেলেন মোশাররফ। এর আগে জাতীয় দলের হয়ে তিনটি ওয়ানডে খেলেছেন তিনি। তিন ম্যাচে উইকেট সংখ্যা মাত্র একটি। তবে সম্ভাবনাময় এই স্পিনার ভারতের বিদ্রোহী ক্রিকেট লিগ আইসিএলে খেলার কারণে নিষিদ্ধ হয়ে যান। তিন বছর আগে একবার জাতীয় দলে ডাক পেলেও মাঠে নামা হয়নি। তবে সব কিছু ঠিক থাকলে হয়তো আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে তৃতীয় ম্যাচেই দেখা যেতে মোশাররফকে।  জাতীয় লিগ খেলতে বগুড়ায় গিয়েছিলেন মোশাররফ। কিন্তু আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ হেরে যাওয়ার পর রাতেই নির্বাচক হাবিবুল বাশার তাকে ফোন করেন। মোশাররফকে দ্রুত ঢাকায় ফিরতে বলেন। রাত একটার বাসে রওনা দিয়ে ভোরে ঢাকায় পৌঁছে যান মোশাররফ। ক্লান্তি নিয়েই সকালে জাতীয় দলের অনুশীলনে যোগ দেন। দলের হয়ে সুযোগ পেলে ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদী মোশাররফ। তিনি বলেন, ‘এটা আমাদের পরিচিত মাঠ। এখানে আমি অনেক ম্যাচ খেলেছি। আশা করছি ভালো করতে পারব।’ দ্বিতীয় ম্যাচে দেখা গেছে বাংলাদেশের স্পিনারদের চেয়েও ভালো করেছে আফগান স্পিনাররা। মোশাররফ মনে করেন, ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার কারণেই তাদের স্পিনাররা বাড়তি সুবিধা পেয়ে গেছেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের স্পিনাররা ভালোই বোলিং করেছেন। কিন্তু ওরা বেশি ভালো করার কারণ হচ্ছে, আমাদের ব্যাটসম্যানরা সেট হওয়ার পরও আউট হয়ে গেছেন। নিয়মিত উইকেট পড়ার কারণে ওদের স্পিনাররা বেশি চাপ প্রয়োগ করতে পেরেছেন। তবে বোলাররাই তখনই ভালো করতে পারে যখন ব্যাটসম্যানরা ভালো একটা পুঁজি দিতে পারে।’ একজন পেসারকে বাদ দিয়ে দলে নেওয়া হয়েছে স্পিনার। পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে, শেষ ম্যাচে পুরোপুরি স্পিননির্ভর হয়েই খেলতে চাচ্ছে বাংলাদেশ। কিন্তু হঠাৎ একই স্পিন নির্ভরতা কি আদৌও ফলপ্রসূ হবে —এটা অবশ্য সময়ই বলে দেবে।

তৃতীয় ওয়ানডের দল

মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন, নাসির হোসেন, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, তাইজুল ইসলাম, শফিউল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ ও মোশাররফ হোসেন

up-arrow