Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৪৩
খেলতে হবে আত্মবিশ্বাস নিয়ে
সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ আজ
মেজবাহ্-উল-হক
খেলতে হবে আত্মবিশ্বাস নিয়ে
সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক মাশরাফি —বাংলাদেশ প্রতিদিন

আফগানিস্তান সাম্প্রতিক সময়ে অনেক ভালো ক্রিকেট খেলছে। এটা সবাই জানে।

বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররাও জানতেন। কিন্তু তাই বলে বাংলাদেশকে হারাবে এটা কারও ভাবনার মধ্যেও ছিল না। আর মাশরাফিরা ১১ মাস পর আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেলতে নামছে বলে নিজেদের পারফরম্যান্সের গ্রাফটা এত নিচে নেমে যাবে এটিও ছিল অপ্রত্যাশিত।

ব্যাটসম্যানরা লম্বা জুটি করতে পারছেন না। বোলাররা প্রতিপক্ষকে চেপে ধরতে পারছেন না। এমনকি ফিল্ডাররাও একের পর এক ভুল করে চলেছেন। স্ট্যাম্পিং মিস, ক্যাচ মিস, এক রানের জায়গায় দুই রান হচ্ছে! এমন নানা ভুলের সমাহারেই দ্বিতীয় ম্যাচে হারতে হয়েছে। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে পরাজয়ে হতাশ অধিনায়ক মাশরাফি নিজেও।

তবে এক ম্যাচে হারেই যে সব শেষ হয়ে গেছে, এমনটাও বিশ্বাস করেন না টাইগার ক্যাপ্টেন। এখনো সিরিজ শেষ হয়ে যায়নি। আজকের ম্যাচে জিতেই সিরিজ নিশ্চিত করতে চায় বাংলাদেশ। তবে আজ জিততে হলে আত্মবিশ্বাস নিয়েই মাঠে নামতে হবে। মাশরাফি বলেন, ‘আত্মবিশ্বাস আছে। খেলতে হবে আত্মবিশ্বাস নিয়েই। আমার কাছে মনে হয় না আমরা এতদিন যে কাজগুলো করে এসেছিম, যে সাফল্য পেয়ে এসেছি তা একদিনের একটি ম্যাচে শেষ হয়ে যাবে। এমন হারে সবাই হতাশ। এর মানে এই না যে আমরা এতদিন যে কাজগুলো করেছি তা আমরা ভুলে গেছি। একটা খারাপ দিন ছিল, এটা ক্রিকেটে হয়। যে কোনো স্পোর্টসে হয়। এগুলো মাথায় নিয়ে নামলে আরও কঠিন হবে কাজটা। আমরা চেষ্টা করছি মানসিকভাবে ফ্রি থেকে মাঠে নামতে। ’

আজ হারলেই ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতে যাবে আফগানিস্তান। যদি এমনটা ঘটেও যায় সেটাকে আপসেট বলবেন না মাশরাফি। কেননা এক ম্যাচ জিতলেও আরেক ম্যাচে লড়াই করেছে সমানতালে। তারা এখানে যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছে। তবে হেরে যাওয়ার কথা মোটেও ভাবছেন না টাইগার ক্যাপ্টেন। মাশরাফি শুধু নিজেদের পারফরম্যান্স নিয়েই ভাবছেন।

গত এক বছর বাংলাদেশ ঘরের মাঠে টানা পাঁচটি ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে। জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে সিরিজ দুটি বাদ দিলে বাকি তিন সিরিজের তিন প্রতিপক্ষ ছিল ক্রিকেটের পরাশক্তি তিন দল- পাকিস্তান, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা। তাই আফগানিস্তানকে নিয়ে মোটেও দুশ্চিন্তা করছেন না মাশরাফি। খারাপ দিন তো বার বার আসে না! তাই আফগানদের নিয়ে না ভেবে নিজেদের পরিকল্পনা নিয়ে ব্যস্ত তিনি। মাশরাফি বলেন, ‘আমাদের প্রতিপক্ষকে নিয়ে চিন্তা করার থেকে আমাদের নিয়ে বেশি চিন্তা করা উচিত। আমরা কী খেলছি, আমাদের পরিকল্পনা কী? আমাদের একটা খারাপ দিন গেছে। খারাপ দিন নিয়ে ভেবে আবার মাঠে নামলে মেন্টালি ও মোরালি আমাদের আরও ডিস্টার্ব হতে পারে। এমন কিছু না ভেবে আমরা গত এক-দেড় বছর যেটা ভেবেছি, যেভাবে ইতিবাচক ক্রিকেট খেলেছি সেভাবেই ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করব। যদি আফগানিস্তান আমাদের থেকে ভালো খেলে অবশ্যই সেটা তাদের দিন হতে পারে। আমি মনে করি আত্মবিশ্বাস নিয়ে মাঠে নেমে আত্মবিশ্বাসী হয়ে খেলাই ভালো। ’ 

আজ মাঠে নামার আগে আফগানদের বিরুদ্ধে প্রথম দুই ম্যাচের কথা ভাবতে চান না মাশরাফি। বরং সিরিজের শেষ ম্যাচে নিজেদের সামর্থ্য দেখিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েই খেলবেন টাইগাররা। ক্যাপ্টেন বলেন, ‘গত এক বছর ধরে আফগানিস্তান ভালো ক্রিকেট খেলছে; আর আমরা খেলার বাইরে। প্রথম ম্যাচেই বিষয়টা পুরো স্পষ্ট হয়েছে। দ্বিতীয় ম্যাচে আমাদের ব্যাটিং অর্ডার ভেঙে পড়েছে। ম্যাচটা সহজ হবে এটা আমরা প্রত্যাশা করছি না। শেষ ম্যাচে ভালো রিকোভারি করেও শেষ করতে পারিনি। আমাদের উইকেট একের পর এক পড়ে যায়। এটা আসলে আমরা প্রত্যাশা করিনি। আমি নিশ্চিত ব্যাটসম্যানরা আগের দিন যা করেছে, এটা নিয়ে তাদের ভাবার কোনো সুযোগই নেই। ’

আফগানিস্তানের সঙ্গে আগের ম্যাচে হেরে যাওয়ায় র‌্যাঙ্কিংয়ে আগের অবস্থান সাত নম্বরে থাকলেও বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট কমে গেছে। মাশরাফিদের রেটিং ৯৫, আট নম্বরে থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজের পয়েন্ট ৯৪। আজ হারলেই এক ধাপ নেমে যাবে বাংলাদেশ। র‌্যাঙ্কিং সম্পর্কে মাশরাফি বলেন, ‘র‌্যাঙ্কিংয়ে যত তাড়াতাড়িই উঠেছি আমরা, যদি খারাপ খেলি তত তাড়াতাড়িই নেমে যাওয়ার সুযোগও আছে। এটা সবাই জানে। আমাদের পরিকল্পনা আমরা সবার সঙ্গে জিততে চাই, সেটা আফগানিস্তান, অস্ট্রেলিয়া যারাই থাকুক না কেন। এই জিনিসটা যদি আমরা ঠিক রাখতে পারি জিততে পারলে র‌্যাঙ্কিং এগিয়ে যাবেই। ’

up-arrow