Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১১
সাব্বিরই সেরা
ক্রীড়া প্রতিবেদক

টি-২০ বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপের প্রস্তুতির জন্য ২০১৫ সালে এপ্রিলে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে এক্সপেরিমেন্ট চালায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। খুলনার আবু নাসের স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সিরিজের প্রথম ম্যাচে ছয় নম্বর থেকে হঠাৎ ব্যাটিং অর্ডারের তিন নম্বরে নামিয়ে দেওয়া হয় সাব্বির রহমানকে।

টি-২০র ব্যাটিং অর্ডারে সাকিব আল হাসানের পজিশনে সাব্বিরকে নিয়ে এসে চমক দেখিয়েছিলেন মাশরাফি। ব্যাটিং অর্ডারে হঠাৎ উন্নতিতে সাব্বিরের পারফরম্যান্সেও দারুণ পরিবর্তন। ওই ম্যাচে ৩৬ বলে করেছিলেন ৪৬ রান। পরের ম্যাচে অপরাজিত ৪৩। তার পরের ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি।

টি-২০র মতো গতকাল ওয়ানডেতেও একই কৌশল অবলম্বন করলেন মাশরাফি। এখানেও সফল। ছয় নম্বর থেকে তিনে ব্যাটিং করার সুযোগ পেয়েই ৬৫ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন সাব্বির। অথচ আগের দুই ম্যাচে তিনি সুবিধা করতে পারেননি। ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তনেই যেন দেখা গেল আগ্রাসী সাব্বিরকে। নিজে ৭৯ বলে করেন ৬৫ রান। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে তামিমের সঙ্গে ১৪০ রান তুলে বাংলাদেশকে দাঁড় করিয়ে দেন শক্ত ভীতের ওপর। তিন ছক্কা ও ছয় বাউন্ডারিতে সাজানো অসাধারণ এক ইনিংস।

তিন নম্বরে নেমে সাব্বির রহমান ভালো করায় যেন দুশ্চিন্তা মুক্ত হলো বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট। কেন না এই পজিশনে কেউ-ই ভালো করতে পাচ্ছিলেন না। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম ম্যাচে এই পজিশনে খেলেছেন ইমরুল কায়েস। দ্বিতীয় ম্যাচে তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ইমরুল করেছিলেন ৩৭, মাহমুদুল্লাহ আউট হয়েছেন ২৫ রানে। অথচ দলের ব্যাটিং অর্ডারে গুরুত্বপূর্ণ জায়গা এটি। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামলে রানের গতি ধরে রাখার পাশাপাশি খেলতে হয় লম্বা ইনিংস। কাল সে কাজই করেছেন সাব্বির। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে কঠিন সিরিজের আগে তিন পজিশন নিয়ে যেন চিন্তা মুক্ত হলো বাংলাদেশ।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow