Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৫ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:০১
স্পিনে ভয় নেই সাব্বিরের
ক্রীড়া প্রতিবেদক
স্পিনে ভয় নেই সাব্বিরের

আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজ জিতলেও তাদের স্পিনারদের বিরুদ্ধে সুবিধা করতে পারেননি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। স্পিনাররাই মাশরাফিদের বিপদে ফেলে দিয়েছিল।

ইংল্যান্ড দলেও মঈন আলী, আদিল রশিদের মতো স্পিনার। তবে আফগান স্পিনারদের মতো ইংলিশ স্পিনাররা ভয়ঙ্কর হতে পারবে না বলে মনে করেন মারকুটে ব্যাটসমান সাব্বির রহমান। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় না খুব বেশি কষ্ট হবে। ’

একদিন আগে ফতুল্লায় প্রস্তুতি ম্যাচেও দেখা গেছে, ইংলিশ স্পিনাররা সুবিধা করতে পারেননি। লেগ স্পিনার আদিল রশিদ ১০ ওভার বোলিং করে রান দিয়েছেন ৭৬। পেয়েছেন মাত্র এক উইকেট। আরেক স্পিনার মঈন আলী ৭ ওভার বোলিং করে দিয়েছেন ৪১ রান। তিনি কোনো উইকেটও পাননি। তবে ইংলিশদের ব্যাটিং লাইনআপ গুঁড়িয়ে দিতে পারে যেকোনো দেশের শক্তিশালী বোলিং লাইনআপকে। অন্যদিকে বাংলাদেশের প্রধান দুর্বলতা ব্যাটিংয়েই। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজে দেখা গেছে শুরুতে ভালো হলেও স্লোগ ওভারে ঠিকমতো রান হচ্ছে না। আবার পাওয়ার প্লেতে কখনো কখনো রান হচ্ছে না ঠিক মতো। যে কারণে স্কোরও বড় হচ্ছে না। তবে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে উইকেট ভালো হলে রান করতে সমস্যা হবে না বলে মনে করেন সাব্বির। তিনি বলেন, ‘রান করতে তেমন কোনো সমস্যা হবে না। আমরা অনেক দিন পর আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলছি। আফগানিস্তানের সঙ্গে তিনটা ম্যাচ খেলা শেষ। ইংল্যান্ডের সঙ্গে অনেক দিন পর খেলব। আফগানিস্তানের সঙ্গে কী করেছি, কী করেনি সেটা দেখার বিষয় নয়। আমাদের মেইন লক্ষ্য ইংল্যান্ড সিরিজ। ’

ইংল্যান্ডের শক্তিমত্তা সম্পর্কে সাব্বির বলেন, ‘ইংল্যান্ড দলে অনেক ভালো কয়েকজন ব্যাটসম্যান আছে। এদের কয়েকজন আমাদের সঙ্গে বিপিএল খেলেছেন। প্রিমিয়ার লিগে খেলেছে। এমনকি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেই খেলেছে। ওরা এখন অনেক কিছুই শিখেছে। এখানে স্পিন বোলিং কিভাবে খেলতে হয়। উইকেট কেমন হবে। অনেক ধারণাই পেয়ে গেছে। ’

টি-২০তে সাব্বির ব্যাটিং করেন তিন নম্বরে। কিন্তু ওয়ানডেতে ছয়-সাতে ব্যাটিং করতেন। তবে প্রথম দুই ম্যাচে সুবিধা করতে না পারায় তাকে তিন নম্বরে নিয়ে আসা হয়। ওয়ান ডাউনে ব্যাটিং করতে নেমেই বাজিমাৎ করেন। দুর্দান্ত এক হাফ সেঞ্চুরি করেন। তিন নম্বরে ব্যাটিং করতে নিজ থেকেই আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন নাকি টিম ম্যানেজমেন্ট নিজে থেকেই বলেছে? এমন প্রশ্নে সাব্বির বলেন, ‘আমি কিছুই বলিনি। টিম ম্যানেজমেন্টের দায়িত্ব ছিল এটা। তারাই এই সিদ্ধান্ত নিয়ে আমাকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছে। তবে  আমি ওই পজিশনে ব্যাট করতে রাজি ছিলাম। আমি অনেকগুলো ম্যাচে তিন নম্বরে ব্যাটিং করেছি এমনকি শেষ প্রিমিয়ার লিগেও নাম্বার তিনে ব্যাটিং করেছি। এখানে ব্যাটিং করে আমি অভ্যস্ত হয়েছি। তাই কোচ আমাকে এই পজিশনে ব্যাটিং করতে পাঠিয়েছেন। ’ তবে দলের প্রয়োজনে যেকোনো পজিশনেই ব্যাটিং করার জন্য প্রস্তুত সাব্বির।

up-arrow