Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৪৯
বাফুফে কর্মকর্তাদের পদত্যাগ দাবি
ক্রীড়া প্রতিবেদক

সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনসহ বাফুফের নির্বাহী কমিটির সব সদস্যের পদত্যাগ দাবি করেছে ঐতিহ্যবাহী ঢাকা মোহামেডান। ক্লাবের ডাইরেক্টর ইনচার্জ লোকমান হোসেন ভূঁইয়ার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে বর্তমান কমিটির অদক্ষতা ও দুর্নীতির কারণে দেশের ফুটবল ধ্বংসের মুখে।

জাতীয় দল বার বার ব্যর্থতার পরিচয় দিলেও ফুটবলের মানোন্নয়নে বাফুফে কোনো উদ্যোগ নিতে পারেনি। সর্বক্ষেত্রে তারা ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। কিছুদিন আগে প্রীতিম্যাচে মালদ্বীপের কাছে বিধ্বস্ত হয়েছে। যে ভুটানের জয়ের রেকর্ড ছিল না, বাংলাদেশ বা ঢাকার ক্লাবগুলোর সামনে যারা দাঁড়াতেই পারত না তারাই ১০ অক্টোবর থিম্পুতে অনুষ্ঠিত ম্যাচে বাংলাদেশকে নিয়ে ছেলেখেলা খেলেছে। এশিয়ান কাপ প্রাক-বাছাইপর্বে ঢাকায় ম্যাচে দুই দেশ গোলশূন্য ড্র করে। এ অবস্থায় থিম্পুতে ১-১ গোলে ড্র করলেই বাংলাদেশ বাছাইপর্বে চলে যেত। কিন্তু পারেনি ১-৩ গোলে শোচনীয় হারে ফুটবলে দেশকে লজ্জায় ডুবিয়েছে। এই হারে শুধু বাছাইপর্ব নয় এএফসি আয়োজিত বেশ কটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার সুযোগও হারিয়ে ফেলেছে। এই দায় পুরোপুরি বাফুফে কর্মকর্তাদের নিতে হবে। ভুল দিক নির্দেশনার কারণে দেশে দীর্ঘদিন ধরে ভালোমানের খেলোয়াড়ের দেখা মিলছে না। খেলোয়াড় সংকটে ক্লাবগুলোর এখন পেশাদার লিগেও দল গড়া মুশকিল হয়ে পড়েছে। নিম্নমানের খেলা দেখতে দর্শকরাও লিগের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে।

মোহামেডান ক্লাব মনে করে ভুটানের কাছে হারের পর বর্তমান কমিটি থাকা অবস্থায় ফুটবলের কোনো উন্নয়ন ঘটবে তা আশা করাই বোকামি হবে। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ইতিহাসে সর্বনিম্ন অবস্থানে বাংলাদেশ। সুতরাং ধ্বংস বলতে যা বোঝায় তার কোনো কিছু বাকি রাখেনি নির্বাহী কমিটির কর্মকর্তারা। মোহামেডানের অভিযোগ ফুটবল উন্নয়নে কোটি কোটি টাকা ফান্ড আসছে। এই অর্থ কোন কোন খাতে ব্যয় হচ্ছে তার কোনো হিসাব নেই। ফান্ড নিয়ে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগও তুলেছে মোহামেডান। এই অবস্থা চলতে থাকলে দেশের ফুটবলকে মৃত ঘোষণা করতে হবে। যা দেশবাসীর কাম্য নয়।

ফুটবলের বৃহত্তর স্বার্থে বাফুফে কর্মকর্তাদের এখনি পদত্যাগ করা উচিত। এজন্য মোহামেডান সরকারের প্রভাবশালী মহলের হস্তক্ষেপ চায়।

up-arrow