Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:২৬
শেখ রাসেলের নতুন উদ্যোগ
শেখ রাসেল স্কুল টেবিল টেনিস প্রতিযোগিতা শুরু কাল
ক্রীড়া প্রতিবেদক
শেখ রাসেলের নতুন উদ্যোগ
শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের আয়োজনে কাল মঙ্গলবার শুরু হচ্ছে শেখ রাসেল স্কুল টেবিল টেনিস প্রতিযোগিতা। টুর্নামেন্ট উপলক্ষে গতকাল সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দিচ্ছেন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের চেয়ারম্যান ও বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান —রোহেত রাজীব

‘আমাদের সময়ে মাঠের অভাব ছিল না। কত খেলা যে খেলেছি হিসাব করতে পারব না। অথচ এখন মাঠের হাহাকার চলছে, ছেলেরা খেলতেই পারছে না। নিরুপায় হয়ে ছেলেমেয়েদের ভিডিও গেমস নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে।’ গতকাল শেখ রাসেল স্কুল প্রতিযোগিতা উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে আফসোস করেই কথাগুলো বললেন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের চেয়ারম্যান ও বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান। বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় শেখ রাসেল চেয়ারম্যানের বাসভবনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে শেখ রাসেল ক্লাবের সভাপতি নূরুল আলম চৌধুরী, বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম, গোলাম রব্বানী হেলাল, ডিরেক্টর ইনচার্জ ইসমত জামিল আকন্দ লাভলু, বসুন্ধরা ব্যবস্থাপনা পরিচালকের উপদেষ্টা (পররাষ্ট্রবিষয়ক) ড. সাজ্জাদ হায়দার, সালেহ জামান সেলিম, এনায়েত হোসেন মারুফসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

‘সকল শিশুর জন্য খেলাধুলা’ এ স্লোগান সামনে রেখে শেখ রাসেল ক্রীড়াঙ্গনে নতুন উদ্যোগ নিয়েছে। আগামীকাল বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ রাসেলের জন্মদিন। তার স্মৃতি ধরে রাখতে দেশের এই জনপ্রিয় ক্লাব আগামীকাল থেকে শেখ রাসেল স্কুল টেবিল টেনিস প্রতিযোগিতার আয়োজন করছে। পল্টন ময়দানসংলগ্ন শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ ইনডোর স্টেডিয়ামে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করবেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। চার দিনব্যাপী প্রতিযোগিতার পর্দা নামবে ২১ অক্টোবর। ৪২টি স্কুলের ২৬০ জন ছেলেমেয়ে এ খেলায় অংশ নিচ্ছে। ২৫ জন প্রতিবন্ধীও টুর্নামেন্টে খেলবে। দেশের শীর্ষ শিল্পপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপ ও বসুন্ধরা সিমেন্ট প্রতিযোগিতায় পৃষ্ঠপোষকতা করছে। সংবাদ সম্মেলনে সায়েম সোবহান বলেন, ‘পড়াশোনার পাশাপাশি ছেলেমেয়েদের খেলাধুলাও করতে হবে। যে অভিভাবক তাদের ছেলেমেয়েদের টুর্নামেন্টে খেলার অনুমতি দিয়েছেন তাদের ধন্যবাদ জানাই। স্কুলগুলোকেও ধন্যবাদ।’ টুর্নামেন্ট সফল করার জন্য তিনি সবার সহযোগিতা চেয়েছেন। তিনি বলেন, ‘প্রতিবন্ধীদের উৎসাহ দিতে টুর্নামেন্টে তাদের জন্য আলাদা ইভেন্ট রাখা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কন্যা প্রতিবন্ধীদের জন্য কাজ করছেন। আমি মনে করি প্রতিবন্ধীদের প্রতি সবারই নজর দেওয়া উচিত। টুর্নামেন্ট দিয়ে শুরু করলাম। কথা দিচ্ছি, ভবিষ্যতেও প্রতিবন্ধীদের পাশে থাকব।’

শেখ রাসেলই দেশের প্রথম ক্লাব যারা স্কুল পর্যায়ে বড় ধরনের কোনো টুর্নামেন্ট করতে যাচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ক্লাবের সভাপতি নূরুল আলম চৌধুরী বলেন, ‘ক্রীড়াঙ্গনে নতুন দিগন্তের সূচনা করতে যাচ্ছে শেখ রাসেল। এজন্য ক্লাবের চেয়ারম্যান ও বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহানকে ধন্যবাদ জানাই। তার উদ্যোগেই স্কুল প্রতিযোগিতা টেবিলে গড়াচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘সায়েম সোবহান শত ব্যস্ততার মধ্যেও যেভাবে ক্লাবে সময় দিচ্ছেন তাতে আমরা খুশি। তার নেতৃত্বেই ক্রীড়াঙ্গনে শেখ রাসেল এগিয়ে যাবে।’ শেখ রাসেল স্কুল টুর্নামেন্ট আয়োজনে টেবিল টেনিসের সাবেক তারকারা আনন্দিত। চারবারের জাতীয় চ্যাম্পিয়ন সাদী বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ‘শেখ রাসেল নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয় উদ্যোগ নিয়েছে। এজন্য আমি ক্লাবের চেয়ারম্যানকে ধন্যবাদ জানাই।’ তিনি বলেন, ‘এটা সত্য যে, টেবিল টেনিসে আগের সেই রমরমা অবস্থা নেই। সৃষ্টি হচ্ছে না নতুন কোনো খেলোয়াড়। আমার বিশ্বাস, এ প্রতিযোগিতা থেকে নতুন প্রতিভার সন্ধান মিলবে, যারা পরবর্তীতে দেশের জন্য সুনাম বয়ে আনতে সক্ষম হবে।’ বালক দলগত, বালিকা দলগত, বালক একক সাব-জুনিয়র, বালিকা একক সাব-জুনিয়র, বালক একক জুনিয়র, বালিকা একক জুনিয়র ইভেন্টে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।

up-arrow