Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৫২
মেসির হ্যাটট্রিকে বার্সার দুরন্ত জয়
ক্রীড়া ডেস্ক
মেসির হ্যাটট্রিকে বার্সার দুরন্ত জয়
মেসি ফিরলেন মেসিরূপেই। তার হ্যাটট্রিকে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে বার্সেলোনা জয় পেয়েছে বড় ব্যবধানে —এএফপি

বুধবারের রাত আর্জেন্টাইন জাদুকর লিওনেল মেসির ভক্তদের জন্য বিশেষভাবে স্মরণীয় হয়ে থাকবে। পেপ গার্ডিওলার জন্য সম্ভবত আরও বেশি। বিশ্বসেরা ফুটবলার হওয়ার পিছনে গার্ডিওলার অবদান অস্বীকার করতে পারেন না মেসি। তবে গার্ডিওলা যা করেছেন, তার ভুক্তভোগীও এখন তিনিই। পশ্চিমা মিডিয়াগুলো বলছে, গার্ডিওলা এমন এক দৈত্য তৈরি করেছেন, যার আঘাত থেকে তিনি নিজেও এখন আর নিরাপদ নন। বুধবার লিওনেল মেসির দুর্দান্ত হ্যাটট্রিকেই পেপ গার্ডিওলার ম্যানচেস্টার সিটি ৪-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে হেরে যায় ন্যু ক্যাম্পে। এ জয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নকআউট পর্বের পথ অনেকটাই পরিষ্কার করে নিল বার্সেলোনা। তিন ম্যাচে পূর্ণ ৯ পয়েন্ট সংগ্রহ করে কাতালানরা সি গ্রুপের শীর্ষে অবস্থান করছে।

একে একে মাইলফলকগুলো নতুন করে স্থাপন করে চলেছেন লিওনেল মেসি। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আরও একটা নতুন মাইলফলক স্থাপন করলেন তিনি। ইউরোপিয়ান এলিট ক্লাব প্রতিযোগিতায় এতদিন হোম গোলে সবার উপরে ছিলেন রাউল গঞ্জালেস। রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক এ তারকা ৪৯ গোল করেছিলেন হোম গ্রাউন্ডে। ন্যু ক্যাম্পে মেসি করলেন ৫০টি! এই নিয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মেসির গোল সংখ্যা দাঁড়াল ৮৯টি। রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ৯৫ গোল নিয়ে অবস্থান করছেন শীর্ষে। বুধবার ইনজুরি ফেরত লিওনেল মেসি প্রথম একাদশে থেকেই মাঠে নামেন। শুরু থেকেই মেসির দুরন্তপনা সহ্য করতে হয় ম্যানচেস্টার সিটিকে। পেপ গার্ডিওলার শত কৌশলেও কোনো কাজ হয়নি। ১৭, ৬১ ও ৬৯ মিনিটে গোল করে ক্যারিয়ারের ৪১তম হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন মেসি। টুইটারে হ্যাটট্রিক বল হাতে একটা ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে মেসি লিখেছেন, কালেকশনে আরও একটা হ্যাটট্রিক বল যোগ হলো। ক্যারিয়ারের ৪১ নম্বর হ্যাটট্রিক। বার্সেলোনার হয়ে ৩৭টি। আর্জেন্টিনার হয়ে ৪টি। এই উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগেই তো মেসি হ্যাটট্রিক করলেন ৬টি (সর্বোচ্চ সংখ্যক)! মেসির হ্যাটট্রিক ছাড়াও বুধবার বার্সেলোনার পক্ষে একটা গোল করেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার।

এদিকে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বুধবার বিশাল জয় পেয়েছে আর্সেনাল। গানাররা বুলগেরিয়ান ক্লাব লুডোগোরেটসকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে। হ্যাটট্রিক করেছেন মেসুট অজিল। এছাড়াও সানচেজ, ওয়ালকট ও চেম্বারলিন একটি করে গোল করেছেন আর্সেনালের পক্ষে। এ গ্রুপে শীর্ষেই অবস্থান করছে আর্সেন ওয়েঙ্গারের শিষ্যরা। এই গ্রুপে বুধবার জয় পেয়েছে ফরাসি ক্লাব পিএসজিও। তারা ব্যাসেলকে হারিয়েছে ৩-০ গোলে। দলের পক্ষে গোল করেছেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া, লুকাস ও কাভানি। এ গ্রুপে আর্সেনাল ও পিএসজির সংগ্রহ ৭ পয়েন্ট করে। বায়ার্ন মিউনিখ ৪-১ গোলে হারিয়েছে ডাচ ক্লাব এইনঢোভেনকে। অবশ্য এ জয়ের পরও ডি গ্রুপে দুই নম্বরে অবস্থান করছে বায়ার্ন। তিন ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ৬ পয়েন্ট। এই গ্রুপে শীর্ষে অবস্থান করছে স্প্যানিশ ক্লাব অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

up-arrow