Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২১ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১২
মেহেদীর বাবা চাইতেন না ছেলে ক্রিকেটার হোক
নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা
মেহেদীর বাবা চাইতেন না ছেলে ক্রিকেটার হোক

চট্টগ্রামে ইংলিশদের বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্টে ৬ উইকেট নিয়ে অবিস্মরণীয় সাফল্য দেখিয়েছেন খুলনার ছেলে মেহেদী হাসান মিরাজ। সারা দেশে মিরাজের এই সাফল্য নিয়ে ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে চলছে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা।

পঞ্চম বাংলাদেশি হিসেবে টেস্টের এক ইনিংসে ছয় উইকেট প্রাপ্তির কৃতিত্ব দেখিয়েছেন এই ক্রিকেটার। অথচ, জীবনের শুরুতেই নিজ হাতে সাফল্য ছুঁয়ে দেখা এই মিরাজের বাবা জালাল হোসেন চাইতেন না ছেলে ক্রিকেটার হোক।   জানা গেছে, ক্রিকেট খেলার জন্য বাড়ি থেকে কয়েকবার মিরাজকে বের করেও দিতে চেয়েছিলেন তিনি। গরিব মাইক্রোবাস চালক বাবা সংসারের দৈন্যতাকে খুব ভয় পেতেন। ছেলের অনিশ্চিত জীবনের শঙ্কায় বার বার ক্রিকেট খেলতে বাধা দিতেন। তিনি চাইতেন লেখাপড়া শিখে চাকরি করুক মিরাজ। শুক্রবার সরেজমিনে খুলনার খালিশপুরের বিআইডিসি রোডে মিরাজদের বাড়িতে গেলে দেখা যায়, টিনের ছোট্ট একটি ভাড়া বাড়িতে বাবা, মা ও এক বোনকে নিয়ে মিরাজের সংসার। সরকারি বিএল কলেজ থেকে এবারই এইচএসসি পাস করেছেন মিরাজ।

ছেলের অভাবনীয় সাফল্যে আনন্দে আত্মহারা বাবা জালাল হোসেন। বললেন, ছোট বেলায় পড়ালেখায় ফাঁকি দিয়ে ক্রিকেট খেলতে গেলে কত বাধা দিয়েছি। তবু নিজের সিদ্ধান্তে অটল ছিল মিরাজ। দিনরাত ক্রিকেট নিয়েই মেতে থাকত। মিরাজ ও বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের জন্য দেশবাসীর নিকট দোয়া চাইলেন তিনি। কৃতজ্ঞতা জানালেন এক সময়ের দারুণ অপছন্দের মিরাজের সেই ক্রিকেট প্রশিক্ষকের প্রতি। জানা গেছে, স্থানীয় কাশীপুর ক্রিকেট একাডেমির প্রশিক্ষক মো. আল মাহমুদের হাত ধরেই মিরাজের ক্রিকেট যাত্রা শুরু। বাবার বাধা থাকলেও মায়ের অনুপ্রেরণা ছিল মিরাজের ক্রিকেট জীবনের শক্তি।   জানা গেছে, মাঠ সংকটের কারণে ২০১২ সালের পর থেকে খুলনায় অনুষ্ঠিত হয় না ক্রিকেট লিগ। তাই ব্যক্তি উদ্যোগে আয়োজিত টুর্নামেন্টেই চলছে খুলনার ক্রিকেট চর্চা। মেহেদী হাসান মিরাজের মতো প্রতিভাবান ক্রিকেটারদের খুঁজে বের করতে নিয়মিত ক্রিকেট লিগ ও পর্যাপ্ত মাঠের দাবি খুলনার ক্রিকেট-প্রেমীদের।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow