Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:০৬
স্বপ্ন দেখাচ্ছেন সিদ্দিকুর
মেজবাহ্-উল-হক
স্বপ্ন দেখাচ্ছেন সিদ্দিকুর
খেলা শেষে স্ত্রীর সঙ্গে সেলফি তুলছেন সিদ্দিকুর

দিনের খেলা শেষ করে সিদ্দিকুর রহমান চলে যান কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবের পেছনের পাটিং অনুশীলন কোর্সে। সহধর্মিণী অরনির সঙ্গে প্রথমে নিজে সেলফি তুললেন।

তারপর অরনিও সেলফিতে বন্দী করেন সিদ্দিকুরকে। এ সময় স্থানীয় গণমাধ্যমের ফটো সাংবাদিকদের ক্যামেরায় পড়তে থাকে একের পর এক ক্লিক। হাস্যোজ্জ্বল সিদ্দিকুরকে দেখেই অনেকটা আন্দাজ করা যাচ্ছিল বসুন্ধরা বাংলাদেশ ওপেনের দ্বিতীয় রাউন্ডের চিত্র!

বাংলাদেশকে এখন শিরোপার স্বপ্ন দেখাচ্ছেন দেশসেরা গলফার। গতকাল পারের চেয়ে ৫ শট কম খেলেছেন সিদ্দিকুর। দুর্দান্ত একটি দিন পার করে লিডারবোর্ডেও দিয়েছেন দীর্ঘ লম্ফ! ২৯তম স্থান থেকে এখন পঞ্চমে। সিদ্দিকুরের সামনে রয়েছেন আর মাত্র চারজন। ১১ আন্ডার পার খেলে শীর্ষে থাইল্যান্ডের জাজ জানেওয়াতানন্দ। ১০ আন্ডার পার খেলে দ্বিতীয় স্থানের ভারতের শুভঙ্কর শর্মা। যৌথভাবে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন দুই থাই গলফার পানুফল পিতায়ারত ও রাতানন ওয়ানাশ্রীচার।

সিদ্দিকুরের স্বপ্ন এখন শিরোপার দিকেই। শীর্ষে থাকা জাজের সঙ্গে তার পার্থক্য ৬ আন্ডার পারের। গলফ চরম অনিশ্চিয়তার খেলা। একটুখানি মনোযোগের বিঘ্ন ঘটলেই শীর্ষ থেকে নেমে যেতে সময় লাগে না। তাই পরের দুই রাউন্ডে ক্যারিশমা দেখাতে পারলে শীর্ষে উঠা অসম্ভব নয়। সে কারণেই আশাবাদী সিদ্দিকুর, ‘আমি ভালো খেলার চেষ্টা করেছি। আমি যেমন চেয়েছি দিনের শেষে দেখছি তেমনই হয়েছে। তবে এই ধারাবাহিকতাটা যদি ধরে রাখতে পারি আশা করছি ট্রফিটা জয় করা কঠিন হওয়ার কথা নয়। ’

বসুন্ধরা গলফে কাল সব মিলে ভালো করেছে বাংলাদেশ। সব মিলে স্থানীয় ১০ গলফার ‘কাট’ পেয়েছেন, যারা তৃতীয় রাউন্ডে খেলার সুযোগ পাবেন। গতকাল ১ আন্ডার পার খেলে ২২তম স্থানে রয়েছেন দুলাল হোসেন। দুই রাউন্ড মিলে জামাল হোসেন মোল্লা ও সজীব আলী পারের সমান শট খেলে যৌথভাবে ৩১তম স্থানে রয়েছেন। পারের চেয়ে এক শট বেশি খেলে ৩৬তম স্থানে রয়েছেন মোহাম্মদ নাজিম, মোহাম্মদ জিয়া ও বাদল হোসেন। এবার কাট পাওয়া ১০ জনের মধ্যে দুজন অ্যামাচার গলফার। তারা হলেন সম্রাট শিকদার ও আকবর হোসেন। সম্রাট পারের চেয়ে দুই শট বেশি খেলে রয়েছেন ৫০তম স্থানে। তিন শট বেশি খেলে আকবর রয়েছেন ৬৩তম স্থানে। গতকাল বাজে খেলেও শেষ মুহূর্তে ‘কাট’ নিশ্চিত করেছেন রবিন মিয়া।

বসুন্ধরা বাংলাদেশ ওপেনের প্রথম আসরে ‘কাট’ পেয়েছিলেন ৬ জন, দ্বিতীয় আসরে ছিলেন ৫ জন। এবার তার দ্বিগুণ। তবে বসুন্ধরা বাংলাদেশ ওপেনে প্রথম দুই আসরে স্থানীয় গলফারদের ম্যধ্যে সেরা হওয়া সাখাওয়াত সোহেল একটুর জন্য ‘কাট’ মিস করেছেন। পারের চেয়ে ৪ শট বেশি খেলায় তিনি হয়েছেন ৭৩তম। দ্বিতীয় রাউন্ড শেষে যারা ৬৩তম পর্যন্ত ছিলেন তারাই সুযোগ পাচ্ছেন পরের রাউন্ডে খেলার। সর্বোমোট ৭২ জন কাট পেয়েছেন। প্রাইজ মানির অংশও পাবেন এই গলফাররা।

দ্বিতীয় দিন শেষে বসুন্ধরা বাংলাদেশ ওপেন যেন জমে উঠেছে। সিদ্দিকুর রহমান ভালো করায় বাংলাদেশের আশা জেগেছে। তবে শিরোপা লড়াইয়ে চলে আসতে পারতেন দুলাল হোসেনও। আগের দিন পারের সমান শট খেলেছেন। কিন্তু কালকের দিনটি তিনি শুরু করেছিলেন উড়ন্তভাবে। প্রথম সাত হোলেই ৪ আন্ডার পার খেলেন দুলাল। তার মধ্যে ৫নং হোলে পেয়ে যান ঈগল (নির্দিষ্ট হোলে পারের চেয়ে দুই শট কম খেলেন)। কিন্তু শুরুর ছন্দটা আর ধরে রাখতে পারেননি। তা না হলে লিডারবোর্ডে দুলালও নেতৃত্ব দিতেন। দিনের শুরু থেকেই দারুণ খেলেছেন সিদ্দিকুর।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow