Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২১ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ২১ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:২৩
মাগুরায় বঙ্গবন্ধু কাপ ফুটবল
শেখ রাসেল ফাইনালে
মাগুরা প্রতিনিধি
শেখ রাসেল ফাইনালে

বঙ্গবন্ধু কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। গতকাল সেমিফাইনালে টাইব্রেকারে ৭-৬ গোলে তারা হেরে যায়।

কিন্তু মোহামেডান অবৈধভাবে খেলোয়াড় অন্তর্ভুক্ত করায় টুর্নামেন্ট কমিটি জরুরি সভা ডেকে শেখ রাসেলকে বিজয়ী ঘোষণা করে। অর্থাৎ শেখ রাসেল বঙ্গবন্ধু কাপের ফাইনালে খেলবে। খেলার নির্ধারিত সময়ে উভয় দলই ২-২ গোলে ড্র থাকায় টাইব্রেকারে খেলার মীমাংসা করা হয়। পরে এই টুর্নামেন্টে অন্য দলে খেলোয়াড়কে মোহামেডানে খেলানোর কারণে প্রথমার্ধের ৩৩ মিনিটে শেখ রাসেল মাঠ থেকে বেরিয়ে যায়। এ সময় তারা প্রায় ২০ মিনিট মাঠের বাইরে অবস্থান করে।  

বসুন্ধরা সিমেন্টের পৃষ্ঠপোষকতায় মাগুরার বীর মুক্তিযোদ্ধা আছাদুজ্জামান স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ঢাকা মোহামেডান ও শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের পক্ষে বেশ কয়েকজন  তারাকা ফুটবলার অংশ নেন।

টান টান উত্তেজনাপূর্ণ খেলার প্রথমার্ধে কোনো গোল হয়নি। দ্বিতীয়ার্ধের ৪ মিনিটে শেখ রাসেল প্রথম গোল করে। এর পরই শেখ রাসেল দ্বিতীয় গোল করে। মোহামেডান ২০ মিনিটে ১টি গোল পরিশোধ করে ও ৩৭ মিনিটে মোহামেডানের অধিনায়ক তৌহিদুল ইসলাম দলের পক্ষে ২য় গোল করে সমতায়  ফেরেন। এর পর আর কোনো গোল না হওয়ায় নির্ধারিত খেলা শেষে টাইব্রেকার অনুষ্ঠিত হয়। টাইব্রেকারে ঢাকা মোহামেডান ৭-৬ গোলের ব্যবধানে ফাইনালে উঠে।

ঢাকা মোহামেডানের অধিনায়ক তৌহিদুল ইসলাম সবুজ ম্যাচসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। খেলা শেষে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের পরিচালক খলিলুর রহমান জানান, মোহামেডান আজকে খেলার সময় দুজন বিদেশি খেলোয়াড় খেলিয়েছেন যারা এর আগে এই টুর্নামেন্টে অন্য দলের হয়ে খেলেছে। এরা হচ্ছেন, সিও জুনা পিও এবং যাবতা মোস্তফা মোহাম্মদ। এরা টুর্নামেন্টের প্রথম খেলায় মাগুরা আছাদুজ্জামান ফুটবল একাডেমির হয়ে খেলেছিল। এ ব্যাপারে টুর্নামেন্ট পরিচালনা কমিটির কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছি। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি। আজ দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ঢাকা আবাহনী ও বাংলাদেশ নৌ-বাহিনী মুখোমুখি হবে।

up-arrow