Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০৬
টেস্টে ঐতিহ্য ফেরাল হায়দরাবাদ
ক্রীড়া ডেস্ক

বাংলাদেশ টেস্ট খেলার যোগ্যতা পেয়েছে ২০০০ সালে। সেই বছর নভেম্বর মাসেই ঢাকায় ভারতের বিপক্ষে অভিষেক টেস্ট খেলে নাইমুর রহমান দুর্জয়ের নেতৃত্ব দেওয়া বাংলাদেশ।

এরপর দুই দেশ আরও টেস্টে অংশ নেয়। সবকটি অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশে। অভিষেকের মাত্র ৫ বছরের মাথায় জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে সিরিজও জয় করে বাংলাদেশ। যা অনেকের পক্ষে সম্ভব হয়নি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেও সিরিজ জেতার কৃতিত্ব রয়েছে। সিরিজ না জিতলেও ইংল্যান্ডের মতো শক্তিশালী  দেশকে ঢাকা টেস্টে হারিয়েছে। তাছাড়া দুর্ভাগ্যক্রমে পাকিস্তান ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জয় থেকে বঞ্চিত হয়েছে। সুতরাং বাংলাদেশের পারফরম্যান্স একেবারে ফেলে দেওয়ার মতো নয়। এরপরও ভারতের মাটিতে টেস্ট না খেলাটা বিস্ময়কর। ওয়ানডে ও টি-২০ তে অনেক টুর্নামেন্টই খেলা হয়েছে। কিন্তু ভারতের মাটিতে সিরিজ খেলা হয়নি। শেষ পর্যন্ত সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার হায়দরাবাদ রাজীব গান্ধী  স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-ভারতের একমাত্র টেস্ট শুরু হয়েছে। ভারতের মাটিতে প্রথম টেস্ট খেলছে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় দিন শেষে ভারতের ৬৮৭ রানের জবাবে বাংলাদেশ ৪১/১ রান সংগ্রহ করেছে। ঐতিহাসিক এই টেস্টকে স্মরণীয় করে রাখতে হায়দরাবাদ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন একটি স্মারক গ্রন্থ প্রকাশ করেছেন। এর মাধ্যমে বহু বছর ধরে বন্ধ থাকা পুরনো এ ঐতিহ্যকে পুনরুজ্জীবিত করেছে হায়দরাবাদ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন। গতকাল টেস্ট শুরুর পর হায়দরাবাদ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের (এইচসিএ) সাবেক সেক্রেটারি ও বইটির সম্পাদক এবং ১৯৮৩ বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় দলের ম্যানেজার পি আর ম্যানসিং উপস্থিত সাংবাদিকদের হাতে বইটি তুলে দেন।

up-arrow