Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৪১
প্রতিদ্বন্দ্বিতা আশা করেছিলেন কোহলি
ক্রীড়া প্রতিবেদক

ম্যাচ বাঁচাতে প্রায় ১২৫ ওভারের মতো ব্যাটিং করতে হতো বাংলাদেশকে। জয়ের জন্য দরকার ছিল ৪৫৯ রান।

ইতিহাস বলে যা অসম্ভব। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে ১৪২ ওভার ব্যাটিং করার রেকর্ড রয়েছে বাংলাদেশের। কাল হায়দরাবাদে সেই কাজটি করতে পারলো না মুশফিক বাহিনী। যা করেছিল পাকিস্তানের বিপক্ষে। শুধু একটি বড় জুটি কিংবা সেঞ্চুরির ব্যক্তিগত ইনিংস থাকলেই হয়তো ম্যাচটি বাঁচানো যেত। যদিও দ্বিতীয় ইনিংসে ১০০.৩ ওভার ব্যাটিং করেছে বাংলাদেশ। কিন্তু রান করেছে ২৫০। ফলে হার ২০৮ রানে। অথচ প্রথম ইনিংসে ৩৮৮ রান করেছিল টাইগাররা। জয়ের পর ভারতীয় অধিনায়ক বলেন, প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ প্রশংসনীয় ব্যাটিং করলেও দ্বিতীয় ইনিংসে ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেনি। বাংলাদেশ যখন ২৫০ রানে গুটিয়ে যায়, তখনো টেস্টের এক সেশন বাকি ছিল। ভারতীয় অধিনায়ক কোহলি বলেন, ‘হায়দরাবাদের ব্যাটিং উইকেটে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা যদি স্বাভাবিক ব্যাটিং করতেন, তাহলে টেস্টটা বাঁচাতে পারতেন। সত্যি বলতে আমি আশা করিনি ওরা ২৫০ রানের মধ্যে অলআউট হয়ে যাবে। অথচ এই দল নিউজিল্যান্ড সফরে সাড়ে পাঁচশর ওপরে রান করেছিল। ’

এই পাতার আরো খবর
up-arrow